Entertainment

রণবীর-আলিয়া ভাটের বিয়ের কার্ড নিয়ে হৈচৈ বলিউডে

রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাটকে বি-টাউনের লাভবার্ডস হিসাবেই দেখেন অনেকে। আলিয়া প্রকাশ্যেই বলেছেন তিনি রণবীরকে বিয়ে করতে চান। দুজনকে অনেক সময় দেখাও গেছে একসঙ্গে। এমনকি রণবীরের বাবা-মা অর্থাৎ ঋষি কাপুর ও নীতু সিংয়ের সঙ্গেও আলিয়াকে আলাদা করে পারিবারিক অনুষ্ঠানে দেখা গেছে। সব মিলিয়ে দুয়ে দুয়ে চারই করেছেন অনেকে। যখন বলিউড সহ আমজনতার একটা অংশ ভেবেই নিয়েছেন যে রণবীর-আলিয়া বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন বলে, ঠিক তখনই সামনে আসে রণবীর-আলিয়ার বিয়ের নিমন্ত্রণপত্র।

আভিজাত্যপূর্ণ নিমন্ত্রণপত্রের বয়ান বলে দিচ্ছে তা পাত্রপক্ষের তরফের নিমন্ত্রণপত্র। যেখানে রণবীর-আলিয়ার বিয়ের ভেন্যু হিসাবে রাখা হয়েছে যোধপুরের উমেদ ভবন প্যালেসের নাম। বিয়ের দিনক্ষণও রয়েছে। আগামী ২২ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার সন্ধেয় সকলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ঋষি কাপুর ও নীতু সিংয়ের তরফে। কার্ডটি সামনে আসতেই রীতিমত হৈচৈ পড়ে যায় বলিউডে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া এই কার্ড নিয়ে আপাত হৈচৈ এর পর কিন্তু ভুল ভাঙে। জানা যায় কার্ডটি নেহাতই ভুয়ো। মজা করতেই এই কার্ড বানানো হয়েছে। ভুল কীভাবে ধরা যাবে তাও বলে দেন নেটিজেনরাই।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ
Entertainment News
আলিয়া-রণবীরের ভুয়ো বিয়ের কার্ড, ছবি – আইএএনএস

কার্ডটি ভাল করে দেখলে দেখা যাবে আলিয়ার নামের বানান ভুল লেখা হয়েছে। পরের ভুল হল আলিয়ার বাবার নামে। সেখানে মুকেশ ভাট লেখা হয়েছে। আদপে আলিয়ার বাবা মহেশ ভাট। কাকা মুকেশ ভাট। তৃতীয় ভুল ২২ তারিখটা লেখা। ইংরাজিতে ২২ তারিখ লিখতে গেলে ২২ লেখার পর পাশে লিখতে হয় এনডি বা টোয়েনটি সেকেন্ড। কিন্তু কার্ডে ২২ লেখার পর লেখা রয়েছে টিএইচ অর্থাৎ টোয়েন্টি সেকেন্ডথ। এই ভুলে ভরা কার্ড যে কারও মজার ফসল তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি কারও। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button