World

বিমান যাত্রী বলতে কেবল মা ও মেয়ে, যা করলেন তাঁরা

একটি বিমানে সিট সংখ্যা নেহাত কম থাকেনা। যাত্রীও ঠাসা থাকে। সেখানে একটি বিমানে কেবল মা ও মেয়ে সফর করলেন। যাত্রীবাহী বিমান ব্যক্তিগত বিমান হয়ে গেল।

তাঁরা ইকোনমি ক্লাসে টিকিট কেটেছিলেন। তাও আবার ছুটির সময়। অনেকের মনে হতে পারে টিকিট যে পেয়েছেন এই অনেক। ছুটির সময় মানেই তো বিমানে যাত্রীর চাপ। মা ও মেয়ে যখন বিমানে ওঠেন তখন তাঁরা কিছুটা অবাক হন। বিমানের সব সিট ফাঁকা। কেবল তাঁদের আসনে গিয়ে বসলেন।

প্রাথমিকভাবে তাঁদের মনে হয় তাঁরা আগেই এসে পড়েছেন। বাকি যাত্রীরাও এবার আসতে থাকবেন। কিন্তু বিমান ছেড়ে দিলেও তাঁরা দেখেন ইকোনমি ক্লাসের সব সিট ফাঁকাই রইল। যাত্রী কেবল তাঁরা ২ জন। একটি যাত্রীবাহী বিমান কেমন যেন ব্যক্তিগত বিমানে পরিণত হল।

৫৯ বছরের মা ও ২৫ বছরের মেয়ে পুরো বিমানে একা। প্রাথমিকভাবে একটু অস্বস্তি লাগলেও বিমানকর্মীরা জানান বিমানের বিজনেস ক্লাস রয়েছে। সেখানে আরও ৪ জন যাত্রী আছেন। তবে তাঁরা একেবারেই আলাদা জায়গায়। যার সঙ্গে ইকোনমি ক্লাসের কোনও সংযোগ নেই।

ফলে ইকোনমি ক্লাসে ২ জনই যাত্রী। দেখা যায় যাত্রীর চেয়ে বিমানকর্মী বেশি। তাঁরাও মা ও মেয়ের সঙ্গে গল্প জুড়ে দেন। তাঁরা একসঙ্গে ছবিও তোলেন। সব মিলিয়ে ফাঁকা বিমানে দারুণ আনন্দ করেই কাটে মা ও মেয়ের।


ঘটনাটি ঘটেছে গত বছরের ২৫ ডিসেম্বর সেশেলস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। প্রসঙ্গত সেশেলস হল আফ্রিকার সবচেয়ে ছোট দেশ। সেখান থেকেই উড়েছিল এমিরেটস-এর একটি বিমান। যেখানে মা ও মেয়ে ছিলেন একমাত্র যাত্রী।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button