World

প্রেমিকার সঙ্গে বিছানায় শরীরী খেলায় মেতে ছিলেন, কিন্তু সহ্য হল না সে সুখ

প্রেমিকার সঙ্গে বিছানায় উদ্দাম মিলনে মেতে উঠেছিলেন তিনি। কিন্তু তা যে তাঁর সহ্য হবেনা, তা বোধহয় বুঝে উঠতে পারেননি।

এক মহিলা ও তাঁর মেয়ে একটি বাড়িতে থাকেন। সেখানেই যাতায়াত ছিল এক বৃদ্ধের। সেকথা স্থানীয় অনেকেই জানতেন। ওই মহিলার সঙ্গে বৃদ্ধের একটা অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে সেকথাও অনেকের অজানা ছিলনা।

তবে কে কি ভাবছে বা বলছে তা নিয়ে কোনও মাথাব্যথা ওই বৃদ্ধ বা ওই মহিলার ছিলনা। বরং মহিলার বাড়িতে এসে তাঁর সঙ্গে শরীরী মিলনে মেতে উঠতেন বৃদ্ধ। সেই টানেই তিনি বারবার ছুটে আসতেন মহিলার কাছে।

সেদিনও তেমনই হয়েছিল। মহিলার সঙ্গে বিছানায় উদ্দাম শরীরী আনন্দে মেতে উঠেছিলেন বৃদ্ধ। কিন্তু সে মিলন তাঁর সহ্য হয়নি। মহিলা এক সময় বুঝতে পারেন বৃদ্ধের দেহ স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে।

মহিলা দ্রুত মেয়েকে ডাকেন। মা ও মেয়ের বুঝতে অসুবিধা হয়না যে শরীরী মিলনের সময়ই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। ভয় পেয়ে যান তাঁরা।

মা ও মেয়ে স্থির করেন তাঁরা বৃদ্ধের দেহ বাড়ির বাইরে ফেলে আসবেন। সেইমত ২ জন ধরাধরি করে দেহ বাইরে ফেলে দেন। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ ও আশপাশের মানুষের থেকে পাওয়া খবরে পুলিশ ঘটনার কথা জেনে যায়।

পুলিশের জেরার মুখে মা ও মেয়ে স্বীকার করে নেন যে বিছানায় দৈহিক মিলনের সময় বৃদ্ধের মৃত্যুর পর তাঁরাই তাঁর দেহ বাইরে ফেলে আসেন। ঘটনাটি ঘটেছে মিশরে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.