National

কেঁপে উঠল মরুরাজ্য, মাঝরাতেই রাস্তায় মানুষজন

মধ্যরাতে থর থর করে কেঁপে উঠল মরুরাজ্য। ফলে মাঝরাতেই রাস্তায় বেরিয়ে আসেন মানুষজন। পরিবার নিয়ে আতঙ্কে দীর্ঘক্ষণ রাস্তায় কাটান অনেকে।

তখন মধ্যরাত। ঘড়ির কাঁটায় রাত ২টো ২৬ মিনিট। আর কিছুক্ষণ পর শনিবারের ভোরের ফিকে আলো দেখা যাবে পূব আকাশে। ঠান্ডাও পড়েছে। ফলে রাতে লেপ বা রেজাইয়ের তলায় তোফা একটা ঘুমে মত্ত মানুষজন।

ঠিক সেই সময়ই সুখনিদ্রা গেল ভেঙে। অধিকাংশ মানুষ বুঝতে পারলেন সব কাঁপছে। অল্প সময়ের জন্য। তবে কম্পন অনুভূত হল। তা হাড়ে হাড়ে টেরও পেলেন ঘুম ভাঙা মানুষজন। প্রাথমিক ঘোর কাটিয়ে মানুষ বুঝতে পারলেন মাটি কাঁপছে। ভূমিকম্প হচ্ছে।

ভূমিকম্প টের পেয়ে অনেকেই ঘুম থেকে উঠে তড়িঘড়ি বাড়ি থেকে রাস্তায় বেরিয়ে আসেন। ওই মধ্যরাতেই ফাঁকা জায়গায় মানুষজন হাজির হন।

কম্পন মূলত অনুভূত হয়েছে মরুরাজ্য রাজস্থানের জালোরে। কারণ কম্পনের কেন্দ্রস্থলই ছিল জালোর। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৪.৬।

নেহাত কম না হলেও এমন কম্পন প্রাণঘাতী হয়না। খুব একটা ক্ষয়ক্ষতির ভয়ও থাকে না। ভয় থাকে ফের কম্পন হওয়ার। সেই আতঙ্কেই ঘরছাড়া হন মানুষজন।

আরাবল্লী বেল্টে টেকটনিক প্লেটের নড়াচড়ার জেরেই এই কম্পন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা। তবে পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখার প্রয়োজন আছে বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

গুজরাটের কাছে টেকটনিক প্লেটে নড়াচড়া অবশ্য আগেও দেখা গেছে। এদিনও সেই কারণেই কম্পন বলে নিশ্চিত করে না বললেও ভূবিজ্ঞানীরা মনে করছেন ওটাই কারণ। কতটা কি হয়েছে সেটাই খতিয়ে দেখছেন তাঁরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.