State

তার পায়ের আওয়াজ শোনা যাচ্ছে, ঠিক কখন আছড়ে পড়বে রেমাল

দ্রুত আবহাওয়া বদলে যাচ্ছে। কলকাতাতেও ঝোড়ো হাওয়ার দাপট বাড়ছে। উপকূলের চেহারাও রাতারাতি বদলে গেছে। ঠিক কখন আছড়ে পড়তে চলেছে দানব রেমাল।

শক্তিশালী থেকে ক্রমশ দানবীয় রূপ নিচ্ছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল। যত তা স্থলভাগের কাছে এগিয়ে আসছে ততই তার শক্তিবৃদ্ধি হচ্ছে। রবিবার সকাল থেকেই কলকাতা সহ আশপাশের এলাকা জুড়ে ঝোড়ো হাওয়ার দাপট শুরু হয়েছে।

কোথাও কোথাও বৃষ্টিও হয়েছে। এখন স্থলভাগ থেকে মোটামুটি ২৫০ কিলোমিটার মত দূরে রয়েছে এই ঘূর্ণিঝড়। আবহবিদেরা জানিয়েছিলেন সাগরদ্বীপ থেকে বাংলাদেশের খেপুপাড়ার মধ্যে দিয়ে স্থলভাগে প্রবেশ করবে রেমাল।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

এখন জানা যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশের সুন্দরবনের মোংলা এলাকা দিয়ে প্রবেশ করতে চলেছে। মধ্যরাতে প্রবেশের কথা বার বার বলা হচ্ছিল। সেটা অবশ্য সেই মাঝরাতই থাকছে।

রবিবার মাঝরাতেই আছড়ে পড়ার কথা ঘূর্ণিঝড়ের। তাই রাত থেকে কলকাতা বিমানবন্দরেও বিমান ওঠানামায় প্রভাব পড়ছে। ঝড়ের সময় বন্ধ থাকবে বিমান ওঠানামা।

উপকূলীয় এলাকায় যথেষ্ট তৎপরতা নেওয়া হয়েছে। প্রশাসন তৈরি আছে। তৈরি এনডিআরএফ এবং সেনাও। যত রেমাল স্থলভাগের দিকে এগোচ্ছে উপকূল তো বটেই এমনকি তার চেয়ে ভিতরের অংশের স্থলভাগেও তার পদধ্বনি টের পাওয়া যাচ্ছে।

রেমাল যখন আছড়ে পড়বে তখন তার গতি হতে পারে ১১০ থেকে ১২০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা। সর্বোচ্চ গতি পৌঁছে যেতে পারে ১৩৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায়।

ফলে ঝড়ের দাপট যে নেহাত কম হবেনা তা অনুমেয়। সুন্দরবন এলাকার মানুষকে সতর্ক করা হয়েছে। কাঁচা বাড়িতে থাকা মানুষজনকে নিরাপদ দূরত্বে সরতে বলা হয়েছে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button