World

পাইপের জলে বিখ্যাত পাহাড়ি ঝর্ণা সাজানোর চেষ্টা, দেখে ফেললেন একজন

অনেক উঁচু পাহাড়ের গা বেয়ে নেমে আসা ঝর্ণার জল আসলে প্রকৃতির জল নয়। পাথরের খাঁজে লুকিয়ে পাইপ বসিয়ে সেখান থেকে ঢালা। ফাঁস হতেই হইচই।

চারধার পাহাড়ে ঘেরা। সবুজ প্রকৃতি বিরাজ করছে আনাচেকানাচে। তার মাঝেই একটি ঝর্ণা। দেশের সর্বোচ্চ ঝর্ণা। বহু উঁচু পাহাড় থেকে নেমে আসা সেই ঝর্ণা দেখতে শুধু দেশ নয় বিদেশ থেকেও মানুষ হাজির হন। বিভোর হয়ে চেয়ে থাকেন প্রকৃতির এই অপরূপ সৃষ্টির দিকে।

সেই জলের তলায় দাঁড়িয়ে ছবি তোলা, দূর থেকে পুরো ঝর্ণার আপাদমস্তক ক্যামেরাবন্দি করার পালা চলতে থাকে। পর্যটকরা এই ঝর্ণার টানেই হাজির হন এখানে।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

সেই অন্যতম পর্যটন আকর্ষণ ঝর্ণার জল আসার কথা পাহাড়ের উপর থেকে প্রকৃতির আপন খেয়ালে। কিন্তু সত্যিটা একদম অন্য কিছু। অন্তত এক ব্যক্তি পাহাড়ে উপরে উঠে ঝর্ণার ছবি তুলতে গিয়ে ঝর্ণার জল কোথা থেকে পড়ছে তা দেখে ফেলেন।

দেখেন পাহাড়ের পাথরের ফাঁক দিয়ে সকলের নজর এড়ানো একটি পাইপ দিয়ে নিরন্তর জল পড়ছে নিচে। সেই জলই সকলে ঝর্ণার জল ভেবে আনন্দে মেতে উঠছেন। সমাজ মাধ্যমে এই ছবি প্রকাশিত হতেই আলোড়ন পড়ে গেছে চিন জুড়ে।

চিনের ইয়ুনতাই পাহাড়ি ঝর্ণা হল সে দেশের সর্বোচ্চ ঝর্ণা। যা দেখতে এখানে সারাবছর মানুষের ঢল নামে। সেই বিখ্যাত পর্যটন আকর্ষণের ঝর্ণার জল আসলে পাহাড়ের উপরে লাগানো পাইপ থেকে বার হচ্ছে জেনে রীতিমত ক্ষুব্ধ অনেকেই।

যদিও ইয়ুনতাই ট্যুরিজম পার্কের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ওই পাইপ দিয়ে জল আসলে প্রবল গরমের সময়ের জন্য করা। সে সময় ঝর্ণার জল তেমন থাকেনা। তাই পাইপ দিয়ে জল ঢেলে সে সময়ে এই ঝর্ণা দেখতে আসা মানুষজনের চোখ জুড়নোর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

কিন্তু সে ব্যাখ্যায় মানুষের ক্ষোভে তেমন জল ঢালা সম্ভব হয়নি। সংবাদমাধ্যম বিবিসি-তে প্রকাশিত এই খবর বিশ্বজুড়ে আলোড়ন ফেলে দিয়েছে। বহু সংবাদমাধ্যমে এই খবর প্রকাশিত হয়েছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *