Feature

সানগ্লাস মোটেও রোদ আটকানোর জন্য তৈরি হয়নি, এর জন্ম আদালতে

রোদচশমা বা সানগ্লাস পরা হয় রোদ থেকে চোখকে রক্ষা করার জন্য। এটাই সকলে জানেন। কিন্তু রোদচশমার জন্মবৃত্তান্ত মোটেও রোদের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত নয়।

রোদচশমা রোদ আটকাতে তৈরি করা হয়নি। যদিও তার নাম এখন সানগ্লাস। যা সান বা সূর্যের প্রখর রশ্মি থেকে চোখকে রক্ষা করে। চোখকে কড়া রোদে আরাম দেয়। সেইসঙ্গে সানগ্লাস বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে আধুনিক ফ্যাশন বা স্টাইলেরও বাহক।

কিন্তু রোদ থেকে রক্ষা করার এই রঙিন কাচ আদৌ রোদ থেকে আটকানোর জন্য তৈরি করা হয়। এর জন্ম হয়েছিল সম্পূর্ণ অন্য প্রয়োজনকে সামনে রেখে। যার সঙ্গে সূর্য বা রোদের কোনও সম্পর্ক নেই।

সানগ্লাসের জন্ম চিনে। দ্বাদশ শতাব্দীর চিনে এই চশমা তৈরি হয়েছিল। তার আগে এমন কিছু যে চোখে দেওয়ার জন্য হতে পারে সেটাই কারও জানা ছিলনা।

দ্বাদশ শতাব্দীতে চিনে যখন আদালত বসত, সেখানে যিনি বিচারক তিনি কোনও এক পক্ষের কথা শুনতেন, তখন তিনি ধোঁয়াটে স্ফটিকের একটি চশমা জাতীয় জিনিস চোখে পরে থাকতেন। যাতে যিনি বক্তব্য রাখছেন তাঁর বক্তব্য শুনে বিচারকের অভিব্যক্তির পরিবর্তন কারও চোখে না পড়ে।

বিচারকদের যাবতীয় অভিব্যক্তি সেখানে উপস্থিত বাকিদের থেকে লুকিয়ে রাখার জন্য এই ধরনের চশমা জাতীয় ধোঁয়াটে স্ফটিকের বস্তু চোখে পরার রীতি চালু ছিল।

সেই থেকেই রোদ চশমার জন্ম বলে মনে করা হয়। যার সঙ্গে রোদের কোনও সম্পর্ক ছিলনা। যা পরা হত আদালতের পরিসরে। আর সেখানে রোদ এসে পড়ত না।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button