SciTech

কেমন আছে অন্ধকারে ঘুমিয়ে থাকা বিক্রম, ছবি পাঠাল চন্দ্রযান-২

চাঁদে এখন রাত। নিকষ কালো রাত। সূর্য ডুবে যাওয়ার পর এখন লম্বা অপেক্ষা। বিক্রম এখন তাই ঘুমিয়ে আছে। সেই ঘুমিয়ে থাকা বিক্রম আছে কেমন জানাল চন্দ্রযান-২।

২০১৯ সালে ইসরো চন্দ্রযান-২ পাঠায় চাঁদে। সব বাধা, চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করে চন্দ্রযান-২-এর ল্যান্ডার বিক্রম পৌঁছে যায় চাঁদের মাটির একদম কাছে। চাঁদে পা রাখতে তখন আর কয়েক মুহুর্তের অপেক্ষা ছিল। আচমকা তার সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ইসরোর। প্রমাদ গোনেন বিজ্ঞানীরা। আশা আশঙ্কার দোলাচলে পড়ে যান দেশবাসী।

অবশেষে জানা যায় মিশন ব্যর্থ। শেষ মুহুর্তে চাঁদের মাটিতে নামা হয়নি চন্দ্রযান-২-এর। বরং সেখানে ভেঙে পড়েছে সেটি। তারপর ৪ বছর কেটে গেছে। এরমধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সেরে চন্দ্রযান-৩ পাঠায় ইসরো। যা কিন্তু আগের ভুল করেনি।

চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে, যেখানে এর আগে কোনও যান নামতে পারেনি, সেখানে পা রাখে বিক্রম। ২৩ অগাস্ট তারিখটি ইতিহাসের পাতায় জায়গা করে নেয়। বিক্রমের পেট থেকে বেরিয়ে রোভার প্রজ্ঞান চাঁদের মাটিতে তার গবেষণা শুরু করে দেয়।

১০০ মিটার গড়িয়েও যায় প্রজ্ঞান। আর এসব কিছুই চলছিল সূর্যের আলোর ভরসায়। কারণ বিক্রম হোক বা প্রজ্ঞান, তাদের চালিকাশক্তি কিন্তু সূর্যের আলো। সোলার পাওয়ারে তাদের সব শক্তি।


সেই সূর্য চাঁদে অস্ত যেতেই সেখানে নেমেছে নিকষ কালো অন্ধকার। ফলে শক্তিও শেষ। প্রজ্ঞান ও বিক্রমকে তাই চাঁদের মাটিতে আপাতত ঘুম পাড়িয়ে রেখেছেন ইসরোর বিজ্ঞানীরা।

ফের সূর্য উঠলে ২২ সেপ্টেম্বর তারা ফের জেগে উঠতে পারে। কারণ তখন চাঁদে ফের সকাল হবে। তার আগে এখন যখন অন্ধকারে ঘুমোচ্ছে বিক্রম, তখন চাঁদে নামতে ব্যর্থ হওয়া চন্দ্রযান-২-এর অরবিটার চাঁদের চারধারে ঘুরতে ঘুরতে বিক্রমের ছবি তুলে নিয়েছে।

চন্দ্রযান-২-এর চাঁদে নামা ব্যর্থ হলেও অরবিটার চাঁদকে প্রদক্ষিণ করেই চলেছে। তার পাঠানো ছবিতে অন্ধকারে ঘুমিয়ে থাকা বিক্রমকে দেখতে পেলেন বিজ্ঞানীরা। দেখলেন কেমন আছে সে। সেই ছবি তাদের এক্স হ্যান্ডলে ভাগ করে নিয়েছে ইসরো। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button