World

ভদ্রতা রক্ষা করেই ৫টি বাড়িতে ভেঙে ঢুকল সে

ভদ্রতা সে রক্ষা করেছে। একজনও বলতে পারবেননা তাঁদের এতটুকু ক্ষতি করার চেষ্টা হয়েছে। কেবল ৫টি বাড়িতে পরপর ভেঙে ঢুকেছে সে।

সুসজ্জিত পাড়া। প্রতিটি বাড়ি সুন্দর করে সাজানো। প্রায় একইরকম দেখতে। কাঠের বেড়া দেওয়া ছোট্ট বাগানও রয়েছে। বাড়ির অনেক জায়গায় কাচ দিয়ে ঢাকা। ভিতরে যে যাঁর নিজের মত করে সময় কাটাচ্ছিলেন বাসিন্দারা। আচমকাই একটা শব্দে চমকে ওঠেন তাঁরা।

তাঁদের বাড়ির কাচের দরজা বা জানালা যে ভেঙে কেউ ঢুকল তা বিলক্ষণ বুঝতে পারেন তাঁরা। কে ঢুকল তা দেখতে যাওয়ার আগেই মোটামুটি সে নিজেই দর্শন দিয়েছে।

অযাচিতভাবে গৃহস্থের বাড়িতে প্রবেশ করলেও গৃহস্থের সঙ্গে কোনও বেয়াদবি সে করেনি। করলে কারও রেহাই ছিলনা। কিন্তু সে ওসব রাস্তায় না হেঁটে বাড়িতে ঘুরে খাবারের খোঁজ করেছে।

ফ্রিজ খুলে দেখেছে তার পছন্দের কোনও খাবার রয়েছে কিনা। একটি বাড়িতে ফ্রিজারে রাখা প্যাকেট ভর্তি মাংস দেখে সে বোধহয় আর লোভ সামলাতে পারেনি। সেই প্যাকেট মুখে নিয়েই বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যায়। তবে এটা কেউ বলতে পারবেননা সে কারও ক্ষতি করেছে।


এভাবে মাত্র ২ ঘণ্টার মধ্যে একের পর এক পাড়ার ৫টি বাড়িতে সে ঢুকে পড়ে। তারপর খাবারের‌ খোঁজ। পেয়ে গেলে যেমন করে এসেছিল তেমন করে বেড়িয়েও যায়।

কারণ ভাল্লুকটা এটা অন্তত জানত যে সে টোকা দিলে বা বেল বাজালে তো কেউ দরজা খুলবে না। আর তার খাবার চাই। অগত্যা বিনা অনুমতিতেই প্রবেশ।

ভাল্লুকের এই কাণ্ড রীতিমত হইচই ফেলে দেয় ক্যালিফোর্নিয়ার সিয়েরা মাদ্রে এলাকায়। এভাবে বাড়ি বাড়ি ঢুকে লম্ফঝম্ফ করা ভাল্লুকের কাহিনি ছড়িয়ে পড়তে সময় নেয়নি।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button