State

দিলীপ ঘোষের পথ আটকাল পুলিশ, ধুন্ধুমার

বারুইপুরে যাচ্ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ। পুলিশ তাঁর পথ আটকায়। শুরু হয় তৃণমূল-বিজেপি ধুন্ধুমার।

কলকাতা : তৃণমূল ও বিজেপি সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠল পাটুলি এলাকা। ২ পক্ষ একে অপরের দিকে তেড়ে আসে। পুলিশের সামনেই শুরু হয়ে যায় সংঘর্ষ। সংঘর্ষ যথেষ্ট ধুন্ধুমার চেহারা নেয়। ২ পক্ষেরই বেশ কয়েকজন কমবেশি আহত হন। পুলিশ ২ পক্ষের মাঝে দাঁড়িয়ে অবস্থা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করে। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। ক্রমশ আরও ছেলে জড়ো হতে থাকে। এরপরই বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ গাড়ি ঘুরিয়ে নেন। দিলীপবাবু চলে যাওয়ার পরও এলাকায় চাপা উত্তেজনা বজায় ছিল।

ঘটনার সূত্রপাত শনিবার বেলা ১২টা নাগাদ। আম্ফান বিধ্বস্ত বারুইপুর পরিদর্শনে যাচ্ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখান থেকে তাঁর ক্যানিং ও বাসন্তী এলাকাও পরিদর্শনের কথা ছিল। তাঁর কনভয় এদিন বারুইপুর যাওয়ার জন্য পাটুলির কাছে ঢালাই ব্রিজ পার করার সময় দিলীপবাবুর পথ আটকায় পুলিশ। পুলিশ জানিয়ে দেয় লকডাউনের কারণে দিলীপ ঘোষকে আগে যেতে দেওয়া সম্ভব নয়। সেইরকম অনুমতি নেই। কিছুটা সময় পুলিশের সঙ্গে কথাবার্তা চলার পর দিলীপবাবুর কনভয় মুখ ঘুরিয়ে ফেরত যাওয়ার উপক্রম করছিল।

ঠিক সেই সময় আবার বেশ কিছু বিজেপি সমর্থক সেখানে জড়ো হন। উল্টোদিকে জড়ো হন তৃণমূল সমর্থকেরা। প্রথমে মুখেই চলছিল তোপ দাগা। তারপর একসময় ২ পক্ষে হাতাহাতি শুরু হয়ে যায়। পরে পুলিশের তৎপরতায় বিষয়টিকে সামাল দেওয়া সম্ভব হয়। দিলীপবাবুও ফিরে যান। তবে তাঁকে আটকানো নিয়ে তীব্র ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। একইভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button