Entertainment

কাজ কেড়েছে করোনা, মাছচাষ করে পেট চালাচ্ছেন বিখ্যাত গায়ক

করোনা বহু মানুষের মূল জীবিকা কেড়ে নিয়েছে। একই পরিস্থিতি সংস্কৃতি জগতেও। নাহলে বিখ্যাত গায়ককে এখন মাছ চাষ করে দিন গুজরান করতে হয়?

গানের জন্য দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরতে হত তাঁকে। অনুষ্ঠান করার জন্য ডাক পড়ত। যেতেনও তিনি। সদা ব্যস্ত জীবন ছিল।

গান তাঁর ভালবাসা। সেই গান গেয়ে মনের আনন্দ আর গান থেকে মোটা অর্থ উপার্জনে সংসার সুন্দরভাবে চলার আনন্দ। এই ২ নিয়ে দিনগুলো ভালই কাটছিল। জনপ্রিয়তাও নেহাত কম ছিলনা।

সিডি রয়েছে তাঁর গানের। ইউটিউবে তাঁর গানে প্রচুর ভিউ হয়। কিন্তু সব নিমেষে কেড়ে নিল করোনা। করোনার জেরে গানের অনুষ্ঠান আর হচ্ছেনা। গান থেকে রোজগার প্রায় শিকেয় উঠেছে।

তাও প্রায় ২ বছর হতে চলল। নয়া পয়সা রোজগার হচ্ছেনা। তাই আর কবে গানের অনুষ্ঠান পাবেন সেই ভরসায় বসে না থাকে তিনি বেছে নেন একদম আলাদা রোজগারের রাস্তা। যা তাঁকে করতে হবে তা তিনি স্বপ্নেও ভাবেননি।

অসমের বিহু গানের বিখ্যাত গায়ক বিপিন চদাং পরিবারের অন্যদের সঙ্গে আলোচনা করে স্থির করেন তিনি মাছচাষ করবেন। অসমের চরাইদেও জেলার খোমতাই চাকালিয়া গ্রামে তাঁর ১২ বিঘে জমি ছিল। সেই জমি তিনি খুঁড়ে সেখানে পুকুর তৈরি করেন। তারপর সেখানে মৎস্য চাষ শুরু করেন।

এই কাজ করার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী মৎস্য সম্পদ যোজনা থেকে কিছু টাকাও পান। কিছু পেয়েছেন। বেশ কিছুটা বাকি।

বিপিন চদাং জানিয়েছেন সরকার দ্রুত বাকি টাকা দিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তার সঙ্গে নিজের কাছে থাকা কিছু টাকা ঢেলে এখন মাছচাষ করছেন বিপিন।

পুকুরে চারা ফেলার পর এখন মাছগুলির ওজন প্রায় ৪০০ গ্রাম মত হয়েছে। ৭-৮ রকম মাছের চাষ করছেন তিনি। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button