Feature

বাংলার রাজ্য পশুর নাম জানেন, উত্তরটা রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার নয়

বাংলার সুন্দরবনের রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার বিশ্ব বিখ্যাত। রাজকীয় এই প্রাণি এ রাজ্যের গর্ব হলেও তা এ রাজ্যের রাজ্য পশু নয়।

সুন্দরবনের রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার বললে এককথায় সারা বিশ্বের মানুষ চিনতে পারেন। ভারতের জাতীয় পশুও সেটি। পশ্চিমবঙ্গের এই রাজকীয় প্রাণিটির এই বিপুল খ্যাতি সত্ত্বেও তা কিন্তু এ রাজ্যের রাজ্য পশু নয়।

রাজ্য পশুটি চেহারায় অনেকটাই ছোট। তবে তুখোড় সাঁতারু। ডাঙার প্রাণি হলেও সে জলে ডুবসাঁতার পর্যন্ত দিতে পারে। অবশ্যই নিজেদের জীবন রক্ষার তাগিদেই তাদের এই সাঁতারে পারদর্শিতা।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

তবে ডাঙায় ঘুরে বেড়ানো অন্য অনেক প্রাণিরই সেই দক্ষতা নেই। গায়ে রোম হলদে ধূসর। তার ওপর থাকে কালো ডোরা দাগ এবং কালো কালো ফুটকির মত। এদের প্রধান খাদ্য হল মাছ।

অবশ্য মাছ ছাড়াও পাখি, পোকামাকড় ও সরীসৃপরা তাদের খাদ্য তালিকায় পড়ে। যদিও সবচেয়ে পছন্দ মাছ। তাই এদের ডাকা হয় মেছো বেড়াল বলে। অনেকে এদের বনবিড়ালও বলে থাকেন।

Jungle Cat
বনবিড়াল, ছবি – সৌজন্যে – উইকিমিডিয়া কমনস

এদেরও সুন্দরবনে দিব্যি দেখতে পাওয়া যায়। মেছো বেড়াল বা বনবিড়ালই হল পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য পশু। যা বাঘ না হলেও ব্যাঘ্র গোষ্ঠীর মধ্যেই পড়ে।

চলতে ফিরতে পাড়ায়, অলিতে গলিতে যে বেড়াল সচরাচর দেখা যায়, বনবিড়াল কিন্তু সেই বেড়াল নয়। এটি ভিন্ন প্রজাতির বেড়াল। সাধারণ বেড়ালের চেয়ে এরা প্রায় দ্বিগুণ বড় চেহারার হয়।

দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়াতেই এদের সবচেয়ে বেশি দেখতে পাওয়া যায়। জলা ভূমিতে থাকতে এরা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে। নেপাল, বাংলাদেশ, থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়াতেও এই মেছো বেড়াল হামেশাই নজরে পড়ে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *