Feature

এ দেশেই রয়েছে চুম্বক পাহাড়, গাড়ি এখানে নিজে থেকেই এগোতে থাকে

কেউ গাড়িতে নেই। স্রেফ পার্ক করা। কিন্তু দেখলেন গাড়ি চলতে শুরু করল নিজে থেকে। এটাই চুম্বক পাহাড়ের এক বিস্ময়কর দিক।

পাহাড়ি এলাকা। বেশ শুকনো। ভারতের এ প্রান্তটা একটু রুক্ষ। গাছপালা কম। তবে ঠান্ডা হাড় কাঁপিয়ে দেবে। লেহ কার্গিল শ্রীনগর জাতীয় সড়কের ওপর ১৪ হাজার ফুট উপরে অবস্থিত এই ম্যাগনেটিক হিল বা চুম্বক পাহাড়। এই অঞ্চলকে ভারতের অন্যতম আশ্চর্য অঞ্চল বলা হয়।

আর তা কেন বলা হয় তা এখানে একটি সাদা চৌকো দাগ কাটা জায়গায় নিজের গাড়ি দাঁড় করালেই বুঝতে পারবেন। শুধু গাড়ি বলেই নয়, এখানে বাইকও দাঁড় করানো যেতে পারে। ঘটনাটা একই ঘটবে।

কি ঘটবে? এই সাদা অংশে গাড়ি বা বাইক দাঁড় করালেই ম্যাজিকটা নজরে পড়বে। গাড়ি হোক বা বাইক নিজে থেকেই এগিয়ে যেতে থাকবে সামনের দিকে।

গাড়িকে তাই নিউট্রালে রাখতে পরামর্শ দেওয়া হয়। দেখা যায় গাড়ি বা বাইক নিজে থেকেই এগিয়ে যেতে থাকে সামনের দিকে। বলা হয় চুম্বক পাহাড়ের বিপরীত মাধ্যাকর্ষীয় শক্তি এখানে কাজ করে।


কেন হয় এমন তা নিয়ে অবশ্য মতান্তরের শেষ নেই। নানা তত্ত্ব রয়েছে। কারও মতে এটা নিছকই চোখের ভুল। দেখে মনে হবে রাস্তাটা পাহাড়ের উপরের দিকে উঠে যাচ্ছে। আর গাড়ি নিজে থেকেই উপরের দিকে উঠছে। নিচের দিকে নামছে না। কিন্তু রাস্তাটা আসলে নাকি নিচের দিকেই চলে গেছে। দেখে মনে হয় উপরের দিকে গেছে।‌

আবার স্থানীয়রা বিশ্বাস করেন এটা হল স্বর্গে যাওয়ার রাস্তা। তবে সবচেয়ে বেশি যে তত্ত্ব প্রচলিত তা হল এই পাহাড়ের প্রবল এক চৌম্বকীয় টান রয়েছে। সেই টানেই এভাবে গাড়ি, বাইক তার দিকে এগিয়ে যেতে থাকে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button