National

এও সম্ভব, ইতিহাস সৃষ্টি করা সমর্থন পেল নোটা

পরিস্কার হয়ে গেল সব ছবি। নতুন সরকার শপথ গ্রহণের অপেক্ষা। এসব নিয়ে খবরের ঘনঘটায় নিঃশব্দে দেশে ইতিহাস গড়ে সমর্থন আদায় করে নিল নোটা।

নান অফ দ্যা অ্যাবাভ, উপরের কেউ নন, এটাও একটা মতদানের বিকল্প। মানে গণতান্ত্রিক প্রথা মেনে নিজের মত প্রকাশ করতে গিয়ে যে কারও যদি মনে হয় তাঁর কোনও প্রার্থীকেই পছন্দ নয়, তাহলে তিনি অনায়াসে এঁদের কাউকে নয় নামে বোতাম টিপে নিজের মত প্রকাশ করে আসতে পারেন।

কারণ মতদান করতে গিয়ে যদি কারও মনে হয় যে তাঁর কাউকেই পছন্দ নয়, তাহলে তিনি কি করবেন? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়েই নোটা নামক একটি সুবিধা চালু হয়েছে।

সেই নোটা যে একেবারেই ফেলে দেওয়ার মত নয় তা ২০২৪ এর সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে পরিস্কার হয়ে গেল। নোটা একটি আসনে দ্বিতীয় স্থান দখল করে নিল। পিছনে ফেলে দিল তাবড় দলের প্রার্থীদের।

মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর লোকসভা কেন্দ্রে এই ইতিহাস রচনা করেছে নোটা। ইন্দোরে কংগ্রেস প্রার্থী আগেই মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছিলেন। লড়াই ছিল বিজেপি ও বহুজন সমাজ পার্টির প্রার্থীর মধ্যে বলে মনে করা হচ্ছিল।


কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল যেটুকু লড়াই তা নোটা দিয়েছে, বিএসপি নয়। দেখা গেছে বিজেপি প্রার্থী শঙ্কর লালওয়ানি এই কেন্দ্রে ১২ লক্ষ ২৬ হাজার ৭৫১টি ভোট পেয়েছেন। এরপর দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে নোটা।

নোটা ভোট পেয়েছে ২ লক্ষ ১৮ হাজার ৬৭৪টি। নোটা ছাড়া মোট ১৪ জন প্রার্থী এই কেন্দ্রে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। যেখানে তৃতীয় স্থান পেয়েছেন বিএসপি প্রার্থী। তাঁর মোট ভোট ৫১ হাজার ৬৫৯টি। ২০১৩ সালে চালু হওয়ার পর এই প্রথম নোটা কোনও কেন্দ্রে এত ভোট পেল। যা এখন নোটার সর্বকালীন রেকর্ড।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button