State

বিপর্যস্ত উত্তরবঙ্গ, ফুঁসছে নদী, ভাঙছে পাহাড়, বিচ্ছিন্ন সিকিম

দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গে প্রবল বর্ষণ উত্তরের পাহাড় জঙ্গল ঘেরা জেলাগুলির পরিস্থিতি ভয়ংকর করে তুলেছে। ২টি শিশু এদিন ভেসে গেছে বন্যার জলে।

করোনার গ্রাফ একটু নামতেই এবার পুজোয় অনেকেই পাড়ি দিয়েছেন উত্তরবঙ্গে অথবা সিকিমে। সেখানে এখন বাঙালি পর্যটক থিকথিক করছে। সে লাভা লোলেগাঁও হোক বা দার্জিলিং, অথবা অন্যান্য পর্যটনক্ষেত্র। সর্বত্রই ভিড়।

তার মধ্যেই প্রবল বর্ষণ চলছে উত্তরের জেলাগুলিতে। ফলে অনেক জায়গায় জল বাড়ছে। বহু জায়গায় ধস নেমেছে পাহাড় থেকে। ফলে রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে।

প্রবল বৃষ্টিতে রাস্তার হালও বেহাল। তার মধ্যে তোর্সা সহ প্রায় সব নদীর জলই বিপদসীমা ছাড়িয়েছে। ২ কুল ছাপিয়ে বইছে নদী।

প্রবল জলের তোড়ে পার ভাঙছে। আলিপুরদুয়ারে এদিন শৌচকর্ম করার সময় তোর্সার দাপুটে জলের তোড়ে ভেসে গেছে ২ শিশু। তাদের এখনও কোনও খোঁজ নেই। জলের টানে কোথায় চলে গেছে তা বোঝাই যাচ্ছে না।

দার্জিলিংয়ের অনেক জায়গায় ধস নেমেছে। ধস নেমেছে লাগোয়া সিকিমেও। সিকিমে বহু পর্যটক ধস ও বৃষ্টির কারণে আটকে পড়েছেন।

সিকিমের সঙ্গে কালিম্পংয়ের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ারের অনেক জায়গায় জল বাড়ছে। অনেক মানুষকে উঁচু জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। নদীতে জল বাড়তে থাকায় অনেক জায়গায় জল ঢুকে গেছে।

এদিকে আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে বৃহস্পতিবার দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি অনেকটা কমে গেলেও উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি চলবে। ফলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। দুর্যোগের কারণে ধস নেমে বন্ধ বিভিন্ন রাস্তা ফের চালু করতেও সময় লাগবে বলে জানা গেছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.