State

অশান্তির তৃতীয় দফাতেও ঝরল রক্ত

রাজ্যের ৮ দফার বিধানসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফাও এদিন কাটল অশান্তিতেই। রক্ত ঝরা থেকে এ দফাও রেহাই পেল না। এদিন ৩ জেলার ৩১টি কেন্দ্রে ছিল নির্বাচন।

কলকাতা : অশান্তি ছাড়া কী একদিনও ভোট পর্ব মিটতে নেই? এ প্রশ্ন এখন তুলছেন সাধারণ মানুষই। যাঁরা ভোটের সকালে টিভি খোলার পর থেকেই দেখতে থাকেন রক্ত ঝরা অশান্তির টুকরো চিত্র। যে চিত্রের পুনরাবৃত্তি হল মঙ্গলবারের তৃতীয় দফাতেও। এদিন ছিল দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া ও হুগলির ৩১টি কেন্দ্রে ভোট। সকাল থেকেই টুকটাক অশান্তির খবর আসতে শুরু করে। তবে গত বারের মত এবার ইভিএম বিভ্রাটের খবর অতটা ছিলনা।

গোঘাটে এক বিজেপি সমর্থকের বাড়িতে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিরা চড়াও হয় বলে অভিযোগ ওঠে। ওই সমর্থক কোথায় তা তাঁর মায়ের কাছে জানতে চায় দুষ্কৃতিরা। উত্তর না পেয়ে মাকে মারধর করে তারা। তাতে ওই বৃদ্ধার মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ। যাকে কেন্দ্র করে সকালেই সেখানে উত্তেজনা তৈরি হয়।

হুগলির খানাকুলের তৃণমূল প্রার্থী মুন্সি নাজমুল হককে এদিন ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা। চেলাকাঠ নিয়ে তাঁর ওপর চড়াও হন তাঁরা। পুলিশ চেষ্টা করে প্রার্থীকে রক্ষা করার। তবে চেলাকাঠের ঘা থেকে রেহাই পাননি নাজমুল। তাঁকে তাড়া করে সেখান থেকে চলে যেতে বাধ্যও করেন বিজেপি সমর্থকেরা।

ফলতার বিজেপি প্রার্থী বিধান পাড়ুই এদিন আক্রমণের মুখে পড়েন। তাঁর গাড়ি তাড়া করা হয়। গাড়িতে আধলা ইট ছোঁড়া হয়। গাড়ির কাচ ভেঙে যায়। পুলিশের চেষ্টায় আর বড় কোনও অঘটন হতে পারেনি। এই ঘটনায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিদের দিকে আঙুল তুলেছেন বিজেপি প্রার্থী। যদিও তৃণমূলের তরফে ঘটনার কথা অস্বীকার করা হয়েছে।

উলুবেড়িয়ার তৃণমূল প্রার্থী নির্মল মাজি এদিন বিক্ষোভের মুখে পড়েন। এদিন তাঁকে লক্ষ্য করে বিক্ষোভ দেখানো হয়। ঘিরে ধরে বিক্ষোভের মাঝে নির্মল মাজি পাল্টা সোচ্চার হন। পরে তাঁকে পুলিশ সেখান থেকে সরিয়ে নিয়ে যায়।

ক্যানিংয়ের ঘুংরিতে এদিন একটি বুথের কাছেই বোমাবাজির ঘটনা ঘটে। বাগনানে এক তৃণমূল নেতাকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপ মারা হয় বলেও অভিযোগ সামনে এসেছে।

দক্ষিণ ২৪ পরগনার জীবনতলায় এক বিজেপিকর্মী ও তাঁর পরিবারকে মারধরের অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। রাস্তা দিয়ে ওই যুবককে টেনে নিয়ে যাওয়া হয়। মহিলাদের নিগ্রহ করা হয় বলে অভিযোগ ওই পরিবারের।

এদিন বিভিন্ন জায়গায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরপেক্ষ আচরণ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। যা নিয়ে তৃণমূলের তরফে একাধিক অভিযোগও নির্বাচন কমিশনে জমা পড়েছে।

এদিকে ডায়মন্ডহারবারের বিজেপি প্রার্থী অভিযোগ করেছেন যে সেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনীর দেখা পাওয়া যাচ্ছেনা বিভিন্ন জায়গায়। সারাদিনই ভোট চলাকালীন নানা জায়গা থেকে টুকটাক অশান্তির খবর মিলেছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button