Kolkata

জোট ঐক্যে ফাটল?

রাজ্যপালের বক্তৃতার ওপর বক্তব্য রাখতে উঠে তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায় অসংসদীয় ভাষা প্রয়োগ করেছেন। এই অভিযোগে বুধবার বিধানসভার অধিবেশন থেকে একযোগে ওয়াক আউট করলেন বাম ও কংগ্রেস বিধায়কেরা। অভিযোগ এদিন অধিবেশনে বক্তব্য রাখতে উঠে শুরু থেকেই বিরোধীদের প্রতি আক্রমণাত্মক ছিলেন তাপস রায়। তাঁর দাবি ছিল রাজনৈতিক কারণে বাম আমলে ৩৩ হাজার সংখ্যালঘু রাজ্যে খুন হয়েছেন। এই বক্তব্যের বিরুদ্ধাচরণ করে বাম বিধায়কেরা সোচ্চার হলে তাঁদের নির্লজ্জ বেহায়া বলে সম্বোধন করেন তাপস রায়। এরপরই তীব্র প্রতিবাদে ফেটে পড়েন বাম বিধায়কেরা। তাঁদের সঙ্গে গলা মেলান কংগ্রেস বিধায়কেরাও। প্রতিবাদে অধিবেশন কক্ষ থেকে একযোগে ওয়াক আউট করেন বাম ও কংগ্রেস বিধায়কেরা। বিধানসভা চত্বরে সরকারের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিতে থাকেন তাঁরা। পরে বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী দাবি করেন, তাঁদের বিরুদ্ধে অশ্লীল শব্দ প্রয়োগ ও খারাপ ভঙ্গিতে কথা বলেছেন তাপস রায়। এজন্য সরকারপক্ষকে ক্ষমা চাইতে হবে এবং তাপস রায়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে বলে দাবি করেন তিনি। আগামী দিনে বিধানসভার অধ্যক্ষের কাছেও এ নিয়ে প্রতিবাদ জানান হবে বলে জানিয়েছেন সুজনবাবু। এ ছিল একটা পর্ব। এই পর্যন্ত জোট ঐক্যের ছবিই ধরা পড়ে বিধানসভা চত্বরে। কিন্তু এতকিছু যখন ঘটছে তখন কক্ষে উপস্থিত ছিলেন না বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান। তিনি ফিরে দেখেন কংগ্রেস বিধায়কেরা বামেদের সঙ্গে ওয়াক আউট করেছে। এতে কিছুটা বিরক্ত হন তিনি। কংগ্রেস বিধায়কদের নিয়ে ফের তিনি বিধানসভা কক্ষে প্রবেশ করেন। অধিবেশনে যোগ দেয় কংগ্রেস। কংগ্রেসের এহেন আচরণে হতবাক হয়ে যান বাম বিধায়কেরা।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button