SciTech

লা নিনার প্রভাবে এবার হিমালয়ের কোলে অন্য শীত

হিমালয়ে এবার অন্য শীতের পূর্বাভাস দিলেন আবহবিদেরা। যার জন্য দায়ী লা নিনা। যার প্রভাব কিন্তু ইতিমধ্যেই টের পেতে শুরু করেছেন হিমালয়ের কোলের বসবাসকারীরা।

একে শীতকাল। তায় আবার হিমালয়। ফলে বোঝাই যাচ্ছে সেখানে পারদ কোথায় নামে। কী প্রবল হাড় কাঁপানো ঠান্ডা হাড়ে হাড়ে টের পেতে হয় সকলকে। সেই হিমালয়ে এবার অন্য শীতের পূর্বাভাস দিয়েছেন আবহবিদেরা।

আবহবিদদের পূর্বাভাস হল এবার হিমালয়ের কোল জুড়ে থাকা উত্তর ভারত জুড়ে তুষারপাত কম হবে। কিন্তু প্রবল শৈত্যপ্রবাহ হবে।

মূলত কাশ্মীর, লাদাখ, হিমাচল প্রদেশ, সিকিম, পশ্চিমবঙ্গের উত্তরাংশে তুষারপাত দেখা যায় শীতের সময়। এবার কাশ্মীরে টানা তুষারপাত চলছে। সঙ্গে হাড় কাঁপানো ঠান্ডা।

তবে যখন কাশ্মীরে ঠান্ডা আরও বেড়ে যায় সেই চিল্লাই কলন-এর ৪০ দিনের শুরুতেই এবার উল্টে পারদ চড়ছে। অবশ্য তুষারপাতও হচ্ছে। তুষারপাত কিন্তু এবার নভেম্বরের শুরু থেকেই কাশ্মীর ছেয়ে ফেলেছিল। যার হাত ধরে ঠান্ডাও পড়ে দ্রুত।

উত্তর ভারত জুড়ে এবার ঠান্ডা কিন্তু বড় ইনিংস খেলবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা। যার কারণ হল লা নিনা। লা নিনা হল প্রশান্ত মহাসাগরের জলের উপরিভাগ স্বাভাবিকের চেয়ে ঠান্ডা হওয়া। ঠিক এল নিনোর উল্টো।

Gangotri Glacier
গঙ্গোত্রী হিমবাহ, ছবি – সৌজন্যে – উইকিমিডিয়া কমনস

এই লা নিনা এবার নিয়ে পরপর ২ বছর সক্রিয় রয়েছে। এবার লা নিনার প্রভাব ২০২২ সালের প্রথম দিকেও বজায় থাকবে। ফলে ঠান্ডাও লম্বা ইনিংস খেলবে বলেই পূর্বাভাস।

বিশেষজ্ঞেরা জানাচ্ছেন লা নিনা-র মাত্রা এবার ২০২২-এর জানুয়ারি এবং ফেব্রুয়ারি মাসে সবচেয়ে বেশি হবে। ফলে ঠান্ডাও পড়বে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button