National

গরমে পুড়ছে লাদাখ, জম্মু ৪২ ডিগ্রি পার

লাদাখেও যে গরম ৪০ ডিগ্রি পার করতে পারে এটা বোধহয় কেউ ভাবতে পারেননি। সেটাই কিন্তু হয়েছে। দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পারদ চড়েছে গঙ্গানগরে।

লাদাখ শুনতেই সাধারণ মানুষের মনে যে ছবিটা উঠে আসে তা হল পাহাড়ের কোলে ঠান্ডা জায়গা। সেই লাদাখে যে পারদ ৪০ ডিগ্রির ওপর যেতে পারে তা কেউ হয়তো সাধারণভাবে কল্পনাও করবেননা।

সেই লাদাখেই কিন্তু গত বুধবার সর্বোচ্চ পারদ রেকর্ড পৌঁছল ৪০.৫ ডিগ্রিতে। যা কলকাতাতেও এবার ওঠেনি। জম্মুতেও এবার পারদ অনেকটা চড়েছে।

৪২.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস পারদ চড়েছে জম্মুতে গত বুধবার। কাশ্মীর জুড়েই এবার তীব্র গরম পড়েছে। স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি পারদ চড়েছে অনেক জায়গায়।

দেশের একটা অংশে যেখানে দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর আগমন ঘটেছে। অনেক জায়গায় বর্ষার বৃষ্টি শুরু হয়ে গেছে। সেখানে উত্তর ও পশ্চিম ভারত কিন্তু অসহ্য গরমে পুড়ছে।


রাজস্থানের গঙ্গানগরে গত বুধবার সর্বোচ্চ পারদ চড়েছিল ৪৫.৮ ডিগ্রি। যা বুধবার সারা ভারতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। পুড়ছে দিল্লিও।

দিল্লিতে পারদ চড়েছে ৪২.২ ডিগ্রি। দিল্লিতে অবশ্য ১২ জুনের পর বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। তার আগে এই গরম থাকবে। বুধবার ৪২ ডিগ্রির ওপর পারদে পুড়লেন দিল্লিবাসী। দুপুরে রাজধানীর রাস্তায় বার হওয়ার অবস্থা ছিলনা।

শুধু দিল্লি বলেই নয়, গত বুধবার হরিয়ানার হিসারে পারদ চড়েছে ৪৫ ডিগ্রিতে, পঞ্জাবের হালওয়ারা ও পাটিয়ালায় রেকর্ড হয়েছে ৪৩ ডিগ্রি তাপমাত্রা।

উত্তরপ্রদেশের ঝাঁসিতে পারদ পৌঁছেছিল ৪৩ ডিগ্রিতে, রাজস্থানের আলোয়ারেও পারদ ছিল ৪৩ ডিগ্রিতে।

এদিকে উত্তর ভারত যখন পুড়ছে তখন বঙ্গোপসাগর ও আরবসাগর লাগোয়া রাজ্যে বর্ষা প্রবেশে করেছে বা করতে চলেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button