Health

বিশ্বে প্রথম করোনা প্রতিষেধক টিকা বানাল রাশিয়া, সদর্প ঘোষণা পুতিনের

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসাবে করোনা প্রতিষেধক টিকা তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে রাশিয়া। এদিন এমনই সদর্প ঘোষণা করলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

মস্কো : কোন দেশ আগে তৈরি করবে করোনা প্রতিষেধক টিকা? তা নিয়ে কার্যত এই অতিমারি পরিস্থিতিতে লড়াই শুরু হয়ে গিয়েছিল। যে দৌড়ে এগিয়ে ছিল ইবোলার টিকা আবিষ্কার করে তাক লাগানো অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মডার্না। রাশিয়া কিন্তু শুরু থেকে টিকা নিয়ে কোনও হৈচৈ এর রাস্তায় হাঁটেনি। তবে তারা যে তৈরির চেষ্টা চালাচ্ছে তা জানা ছিল। মাস খানেক আগে কিন্তু রাশিয়া গোটা বিশ্বকে জানিয়ে দেয় তারা টিকা তৈরি প্রায় করে ফেলেছে। তারা এই টিকা অগাস্টেই নিয়ে আসবে।

অনেক বিশেষজ্ঞ অবশ্য একথা শোনার পর যথেষ্ট চিন্তায় পড়ে যান। এত তাড়াতাড়ি টিকা তৈরি সম্ভব নয় বলেও জানান অনেকে। তবে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে মঙ্গলবার সকালে এক টেলিভিশন বার্তায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সদর্পে ঘোষণা করলেন তাঁর যতদূর জানা আছে রাশিয়াই বিশ্বকে প্রথম টিকাটি দিল। তিনি আশ্বাস দিয়ে জানান তাঁদের টিকা সবদিক থেকে সুরক্ষিত। আর তা পরীক্ষিতও। তিনি এও জানান তাঁর এক কন্যাকেও এই টিকা দেওয়া হয়েছে।

পুতিনের মেয়ে এই টিকা নিয়েছেন। এটা অনেকের মনেই নিশ্চিন্ত ভাব আনবে। সেজন্যই হয়তো পুতিন একথাটি বিশেষ করে জানিয়ে দেন। রাশিয়ার টিকাটি অবশ্য তার ট্রায়ালের তৃতীয় ধাপ অতিক্রম করেনি। তা শুরু হচ্ছে। তার আগেই অবশ্য রাশিয়া উৎপাদনে জোর দিচ্ছে। রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী আগেই জানিয়েছেন যে তাঁদের টিকা অক্টোবর থেকেই রাশিয়ার মানুষের মধ্যে ব্যাপকভাবে দেওয়া শুরু হয়ে যাবে। শুরুতে দেওয়া হবে ফ্রন্টলাইন ওয়ারিয়র ও শিক্ষকদের।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কানেও রাশিয়ার এই টিকা তৈরির কথা পৌঁছেছিল। তাই গত সপ্তাহেই হু রাশিয়াকে পরামর্শ দেয় যে তারা যেন টিকা তৈরির সব গাইডলাইন মেনে একটি সুরক্ষিত টিকা তৈরি করে। তারপর এই সপ্তাহেই পুতিন স্বয়ং রাশিয়ার টিকার সাফল্যের কথা ঘোষণা করলেন। প্রসঙ্গত বিশ্বে এখন শতাধিক টিকা তৈরি চেষ্টা চলছে। যে দৌড়ে ভারতের কোভ্যাক্সিন-ও রয়েছে। হু জানিয়েছে এরমধ্যে ৪টি টিকার ট্রায়াল শেষ পর্বের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button