Feature

সবচেয়ে কম মানুষ থাকেন এই দেশে, জেনে নিন সেই দেশের নাম

পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি জনসংখ্যার দেশ এখন ভারত। দ্বিতীয় স্থানে নেমে গেছে চিন। বিশ্বের সবচেয়ে কম জনসংখ্যার দেশের নামও কিন্তু সকলের জানা উচিৎ।

জনসংখ্যার নিরিখে এশিয়ার ২টি দেশ ভারত ও চিন সবার উপরে। কার্যত বিশ্বের এক তৃতীয়াংশ জনসংখ্যা রয়েছে শুধু এই ২টি দেশে। ভারতে জনসংখ্যার সমস্যা চিরকালই নানা সমস্যা সৃষ্টি করেছে। চিন দীর্ঘকাল জনসংখ্যার নিরিখে প্রথমে থাকলেও ভারত তাকে টপকে গেছে সম্প্রতি।

এদিকে জনসংখ্যার নিরিখে বিশ্বে সবচেয়ে কম মানুষের বাস কোন দেশে এটাও কিন্তু সকলের চেনা। ইতালির রোমের একটি অংশে রয়েছে ভ্যাটিকান সিটি। যা একটি আলাদা রাষ্ট্র। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম রাষ্ট্র।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

বিশ্বের এই ক্ষুদ্রতম রাষ্ট্রের জনসংখ্যাও বিশ্বে সর্বনিম্ন। ১ হাজারেরও নিচে এই ইউরোপীয় দেশটির জনসংখ্যা। একটি দেশে ১ হাজারেরও কম নাগরিক বাস করেন।

ভ্যাটিকানকে একটি পবিত্র নগর রাষ্ট্র হিসাবেও চিহ্নিত করা হয়। রোমেরই একটি অংশ জুড়ে ভ্যাটিকান সিটিতে প্রতিবছর খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বী ভক্ত ও পর্যটকের ভিড় জমে।

ওয়ার্ল্ড অ্যাটলাস অনুযায়ী ভ্যাটিকান সিটির পরই সবচেয়ে কম নাগরিকের দেশ হল প্রশান্ত মহাসাগরের ওপর অবস্থিত মাইক্রোনেশিয়ার অন্যতম ক্ষুদ্র দ্বীপরাষ্ট্র নাউরু। ১১ হাজারের মত মানুষের বাস এখানে।

নাউরু দ্বীপটি তার ফসফেটের জন্য বিখ্যাত। এখানে রয়েছে ফসফেট খনি। নাউরু ছাড়া এই প্রশান্ত মহাসাগরের ওপর থাকা টুভালু হল বিশ্বের তৃতীয় ক্ষুদ্র জনসংখ্যার দেশ। ৯টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত এই দ্বীপরাষ্ট্রটি ফিজির খুব কাছেই অবস্থিত। টুভালুর জনসংখ্যা সাড়ে ১১ হাজারের কাছাকাছি।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *