World

চিন, রাশিয়াকে ঠেকাতে আমেরিকার নতুন হাতিয়ার বেলুন

আমেরিকার জন্য এখন সবচেয়ে বড় মাথাব্যথার নাম হয়ে উঠেছে চিন ও রাশিয়া। এই ২ রাষ্ট্রকে ঠেকাতে এখন আমেরিকার বড় ভরসা হয়ে উঠছে হট এয়ার বেলুন।

আকাশের বুকে ভেসে বেড়াতে বেলুন বহু পুরনো এক মাধ্যম। এখনও অনেক পর্যটনকেন্দ্রে হট এয়ার বেলুন পর্যটকদের আকাশে বেড়িয়ে নিয়ে আসে। এক অন্য অভিজ্ঞতা হয় তাঁদের।

কিন্তু এখন সেই নেহাতই মামুলি হট এয়ার বেলুন এক অত্যাধুনিক হাতিয়ার হয়ে উঠছে আমেরিকার জন্য। পেন্টাগন এর পিছনে প্রচুর অর্থ ব্যয় করছে।

চিন বা রাশিয়া তাদের অস্ত্র ভাণ্ডারকে ক্রমশ সুপারসনিক অস্ত্রে বলীয়ান করে তুলছে। শব্দের চেয়ে ৫ গুণ গতি সম্পন্ন এসব অস্ত্র নির্ভুল লক্ষ্যে আঘাত হানতে প্রস্তুত। এই ধরনের অস্ত্রকে রুখে দিতে তাই এবার আমেরিকা চাইছে ভাল বেলুন।

একটু অবাক করা শোনালেও মার্কিন সামরিক গবেষণায় এখন সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় হচ্ছে এই বেলুন তৈরি করতে। এই বেলুন শত্রুপক্ষের সুপারসনিক যে কোনও আক্রমণ ঠেকাতে সিদ্ধহস্ত হতে চলেছে।

৬০ হাজার ফুট থেকে ৯০ হাজার ফুট উচ্চতায় উড়বে এই হট এয়ার বেলুন। এতটা উচ্চতা থেকে নজরদারির একটা বড় সুবিধা রয়েছে বলেই মনে করছে আমেরিকা।

মার্কিন সেনা আগামী দিনে এই বেলুন ব্যবহার করতে পারবে। যা তাদের আকাশপথে আক্রমণ ঠেকানোর নতুন পথ খুলে দেবে।

এই বেলুন কাজে লাগিয়েই চিন বা রাশিয়ার সুপারসনিক হানা আমেরিকা থামাতে পারবে বলেই মনে করছে সেখানকার সামরিক বিভাগ। তাই আপাতত আমেরিকার প্রতিরক্ষামন্ত্রকের প্রধান কার্যালয় পেন্টাগন গোপনে কাজ চালাচ্ছে এই বেলুন তৈরির প্রযুক্তিতে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button