World

ভুটানের ভূখণ্ডেও নজর চিনের, ধৈর্যের পরীক্ষা নিচ্ছে চিন, বলল আমেরিকা

এবার ভুটানেও তাদের জমি রয়েছে বলে দাবি করল চিন। চিনের এই আগ্রাসন নীতির বিরুদ্ধে হুঁশিয়ার করল আমেরিকা।

নিউ ইয়র্ক : ভারতীয় ভূখণ্ড দখল করার চেষ্টা চিনের থাকলেও তা হতে দেয়নি ভারত। এখনও ভারত-চিন সংঘাত প্রশমিত হয়নি। লাদাখে টানটান পরিস্থিতি এখনও বজায় রয়েছে। তারমধ্যেই এবার চিন তাদের আগ্রাসী থাবা বসানোর চেষ্টা করল ভুটানে। এবার ভুটানের সাকতেং অরণ্যে থাবা বসাতে চাইছে তারা। চিনের দাবি ওই ভূখণ্ড তাদের। ভারতের গালওয়ানে চিনা সেনার আগ্রাসনের চেষ্টা গোটা বিশ্বের জানা। তারপর এবার ভুটানের দিকেও নজর পড়েছে চিনের। চিনা এই আগ্রাসী মানসিকতার বিরুদ্ধে এবার মুখ খুলল আমেরিকা।

মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেয়ো কড়া ভাষায় জানিয়েছেন, চিন এখন সারা বিশ্বের ধৈর্যের পরীক্ষা নিচ্ছে। তারা আগ্রাসী নীতি নিয়েছে। তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো দরকার। মার্কিন সেনেটে বক্তব্য রাখার সময় একথা বলেন তিনি। পম্পেয়ো আরও বলেন, গোটা বিশ্বই চিনের এই আগ্রাসী নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে প্রস্তুত।

এরমধ্যে একটা বিষয় অনেক জায়গায় শোনা যাচ্ছিল যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের বিভিন্ন দেশকে হয় আমেরিকা অথবা চিনের পক্ষ নিতে বলছে। পম্পেয়ো সেনেটে দাঁড়িয়ে স্পষ্ট করে দেন এটা সত্য নয়। আমেরিকা এমনভাবে কাউকে পক্ষ নিতে বলেনি। তিনি বলেন, আমেরিকা সব সার্বভৌম রাষ্ট্রকেই বলছে তারা একটা পক্ষ নিক, তবে তা স্বাধীনতা ও স্বৈরাচারের মধ্যে একটি পক্ষ। আমেরিকা এবং চিনের মধ্যে একটি পক্ষ নয়।

পম্পেয়ো এদিন আমেরিকার পূর্বতন নেতৃত্বের বিরুদ্ধেও তোপ দেগেছেন। তিনি বলার চেষ্টা করেছেন যে চিনকে এতটা বাড়তে দেওয়ার আগেই তাদের দমন করা যেত। আমেরিকা বলেই নয়, অনেক দেশই অর্থনৈতিক ফায়দার কথা মাথায় রেখে তা করেনি। যা চিনকে এতটা বাড়তে দিয়েছে। পম্পেয়ো জানান তিনি গোটা বিশ্বে ঘুরছেন এ বিষয়ে সব দেশকে সচেতন করতে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button