World

পিয়ংইয়ংকে বার্তা দিতেই দক্ষিণ কোরিয়া-আমেরিকা যৌথ মহড়া?

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া শনিবার যৌথ সামরিক নৌ-মহড়া শুরু করল। উত্তর কোরিয়া এই মহড়াকে ‘বর্ধিত হুমকি’ হিসেবেই দেখছে। নৌসেনার ড্রিল বা যুদ্ধ মহড়া এমন সময়েই শুরু হল যখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এশিয়া সফর করছেন। দক্ষিণ কোরিয়ার পূর্ব উপকূলে শুরু হওয়া এই যুদ্ধ অনুশীলন ৪ দিন ধরে চলবে।

রোনাল্ড রেগন, থিওডোর রুজভেল্ট ও নিমিৎজ, এই ৩ মার্কিন রণতরী মহড়ায় অংশ নিয়েছে। সিওলের তরফে জানানো হয়েছে, বায়ুসেনার ক্ষমতা উন্নত করার লক্ষ্যেই এই মহড়ার। পাশাপাশি উত্তর কোরিয়ার তৈরি করা যে কোনও সঙ্কটজনক পরিস্থিতিতে সবরকম সামরিক প্রস্তুতি বজায় রাখার জন্যই এই মহড়ার আয়োজন করা হয়েছে। যদিও এই যৌথ মহড়াকে আদপে পিয়ংইয়ংয়ের পাল্টা আস্ফালন হিসাবেই দেখছেন অনেকে। যেভাবে এই অঞ্চলে দীর্ঘদিন ধরে হাইড্রোজেন বোমা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম তাঁর বেপরোয়া আস্ফালন দেখিয়ে চলেছেন, তার একটা পাল্টা জবাব এই সময়ে দরকার ছিল বলেই মনে করছেন আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button