World

পুতিনের প্রেমিকার জন্য ২টি অট্টালিকার ব্যবস্থা, গোপন তথ্য ফাঁস

বিলাসবহুল জীবনযাপনে তাঁর ত্রুটি রাখেননি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ভিন দেশের ২টি শহরে ২টি বিলাসবহুল অট্টালিকার মালকিন পুতিনের প্রেমিকা।

শুধু স্ত্রীর মর্যাদাটা দেননি। ফলে এখনও এই সম্পর্ক কানাঘুষোতেই রয়ে গিয়েছে। এও শোনা যায় যে পুতিনের প্রেমিকা অলিম্পিক পদকজয়ী এলিনা কাবায়েভার ৪ সন্তান রয়েছে। অনেকে বলেন সন্তানের সংখ্যা নাকি আরও বেশি। যদিও পুতিন এদের কাউকেই সন্তানের স্বীকৃতি দেননি।

সুন্দরী এলিনা চিরকাল পুতিনের প্রেমিকা হয়েই থেকে গেলেন। তবে তাঁকে সামাজিক স্বীকৃতি না দিলেও পুতিন কোনও অভাব রাখেননি।

রাজকীয় জীবনযাপন করেন এলিনা। তবে সর্বসমক্ষে আসতে পারেননা। কোনও সামাজিক অনুষ্ঠানেও তাঁকে দেখা যায়না। এই এলিনার ২টি বিলাসবহুল অট্টালিকার কথা এবার সামনে আনলেন রাশিয়ার বংশোদ্ভূত ইজরায়েলি শিল্পপতি লিওনিদ নেভজিন।

পুতিনের বিরুদ্ধে এখন ন্যাটো কোমর কষছে। সেই ন্যাটোর সদস্য রাষ্ট্র তুরস্ক। নেভজিনের দাবি, এই তুরস্কেরই প্রেসিডেন্ট এরদোগান নিজে উদ্যোগ নিয়ে তাঁর দেশে এলিনা কাবায়েভার ২টি বিলাসবহুল অট্টালিকার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। একটি রয়েছে ইস্তানবুল শহরে। অন্যটি দক্ষিণ তুরস্কে।

সেই ২টি অট্টালিকা যাতে সুরক্ষিত থাকে সেজন্য সেখানে মোতায়েন থাকেন খোদ প্রেসিডেন্টের সুরক্ষার দায়িত্বে থাকা সুরক্ষাকর্মীরা। এই ২টি অট্টালিকায় ঘুরিয়ে ফিরিয়ে গ্রীষ্মকালটা কাটান এলিনা।

যেহেতু কাবায়েভাকে পুতিনের প্রেমিকা হিসাবেই ধরে নেওয়া হয়, মনে করা হয় পুতিনের অনেক সন্তানের মাও তিনিই। সেসব কথা মাথায় রেখে ইউক্রেন সমস্যাকে সামনে রেখে ইংল্যান্ড, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এবং কানাডা এলিনার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। সেখানে তুরস্কে সময় কাটাচ্ছেন এলিনা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.