Entertainment

মহাকাশে শ্যুটিং করবেন টম ক্রুজ, নাসার সঙ্গে কথা শুরু

মহাকাশে এবার হবে সিনেমার শ্যুটিং। তার তোড়জোড় শুরু হয়ে গেছে। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা-র সঙ্গে কথাও এগোচ্ছে।

বিশ্বজুড়ে একাধিক সিনেমায় মহাকাশ দেখানো হয়েছে। কিন্তু তার শ্যুটিং হয়েছে পৃথিবীর বুকেই। গ্রাফিক্সকে কাজে লাগিয়ে বা সেট তৈরি করে সিনেমায় মহাকাশকে বিশ্বাসযোগ্যতা দেওয়া হয়েছে। এবার হলিউড সত্যিই সিনেমার শ্যুটিং করতে মহাকাশে পাড়ি জমাচ্ছে। হলিউড মহাতারকা টম ক্রুজ অভিনয় করতে মহাকাশে পাড়ি দেবেন। এজন্য নাসার সঙ্গে যাবতীয় বিষয় নিয়ে কথাও চলছে। এই শ্যুটিং হলে এটাই হবে বিশ্বের প্রথম সিনেমার শ্যুটিং যা মহাকাশেই করা হল।

অ্যাকশনধর্মী এই সিনেমার শ্যুটিং করতে মহাকাশে পাড়ি দিতে হবে। সেজন্য দরকার বিশেষ ব্যবস্থা। টম ক্রুজ সহ যাঁরা যাবেন তাঁদের উপযুক্ত ট্রেনিং। নাসা ও ইলন মাস্কের সংস্থা স্পেসএক্স-এর মধ্যে কথাবার্তা পাকা হওয়ার পথেই। একটি সত্যিকারের স্পেসএস্ক ভেসেলেই শ্যুটিং হবে। টম ক্রুজ হলিউডে বিখ্যাতই তাঁর চোখ ছানাবড়া করে দেওয়ার মত স্টান্টের জন্য। নিজের স্টান্ট নিজেই দিয়ে থাকেন এই সুঠাম অভিনেতা।

মিশন: ইম্পসিবল মানেই টম ক্রুজ। তাঁর একের পর এক মিশন: ইম্পসিবল সিরিজ গোটা বিশ্বকে চমকে দিয়েছে। মিশন: ইম্পসিবল নামের সিনেমা মানেই অপলকভাবে চেয়ে থাকা স্টান্ট। যার অনেকটাই টম ক্রুজের নিজের দেওয়া। এখান থেকেই বিশ্বখ্যাত তিনি। মিশন: ইম্পসিবল – ফলআউট সিনেমায় অভিনয় করার সময় একটি দৃশ্য ছিল একটি ছাদ থেকে অন্য ছাদে লাফ দেবেন টম। সেই দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করার সময় তিনি হাঁটুতে চোট পান। হাঁটু ভেঙে যায়। মিশন: ইম্পসিবল – রুজ নেশন সিনেমায় একটি জেট বিমান থেকে ঝুলে শ্যুটিং করে সকলকে চমকে দেন টম ক্রুজ। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button