National

তাজমহলে ঢুকেই এখন ভয়ে কাঁপছেন পর্যটকেরা

তাজমহলের মত এক দর্শনীয় স্থানে প্রবেশের পর মানুষ প্রাণ ভরে এই অন্যতম আশ্চর্যকে দেখতে চান। কিন্তু এখন পর্যটকেরা ঢুকছেনই বুক ঢিবঢিব করতে করতে।

প্রেমের সৌধ হিসাবে পরিচিত তাজমহল একবার চোখের দেখা দেখতে কোন ভারতীয় না চান। বলা ভাল কোন মানুষ না চান। দেশবিদেশ থেকে তাই তাজমহলে সারা বছরই পর্যটকের ভিড় লেগে থাকে।

তাজমহল তো অনেকক্ষণ ধরে দেখেও সাধ মেটে না। এত অপরূপ তার প্রতিটি কাজ। সেইসঙ্গে তাজমহল চত্বরও বড়ই চোখ জুড়ানো, দৃষ্টিনন্দন।

ফলে পর্যটকরা এসব দেখবেন, মনের আনন্দে ছবি তুলবেন, বিশ্বের অন্যতম আশ্চর্যের সামনে একটা দারুণ সময় কাটাবেন এটাই তো স্বাভাবিক। কিন্তু এখন তাজমহলে কার্যত ভয়ে ভয়ে ঢুকছেন সকলে।

কারণ একদল লুঠপাটে উন্মত্ত বাঁদর। এরা এখন তাজমহলে আসা দর্শকদের আতঙ্কের কারণ হয়েছে। যখন তখন এর তার হাত থেকে ওই বাঁদররা কেড়ে নিচ্ছে মূল্যবান সামগ্রি। তারপর চম্পট দিচ্ছে তা নিয়ে।

বছর দুয়েকেরও আগে একবার এমন বাঁদরের সমস্যা মেটাতে তাজমহলে সুরক্ষাবাহিনী গুলতি ছুঁড়ে বাঁদর তাড়ানো শুরু করেছিল। তাতে কাজও হয়েছিল। কিন্তু পশু রক্ষা সংগঠনের চাপে গুলতি ব্যবহার বন্ধ করতে হয়।

এখন এমন অবস্থা যে তাজমহলে নিজেদের জিনিসপত্র বাঁদরদের থেকে রক্ষা করতেই অনেক সময় কেটে যাচ্ছে পর্যটকদের। প্রাণভরে তাজমহল দেখে ওঠা তাঁদের হয়ে উঠছে না।

তাজমহলের এক গাইডের দাবি, এখানে গরু, কুকুর এবং বাঁদরের উৎপাত এত যে অনেক পর্যটকই সমস্যায় পড়ছেন। কীভাবে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায় তা নিয়ে প্রশাসনিক স্তরে আলোচনাও শুরু হয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.