National

গর্ভপাত : সুপ্রিম কোর্টের ঐতিহাসিক রায়

২৪ সপ্তাহ পার করা এক গর্ভবতীকে গর্ভপাতের অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট। ওই তরুণীর মেডিক্যাল রিপোর্ট পর্যালোচনা করেই এই ঐতিহাসিক রায় দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত। ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী ধর্ষণের পর গর্ভবতী হয়ে পড়েন। কিন্তু তিনি সেই সন্তান নষ্ট করতে চাননি। কিছুদিন আগে ওই তরুণী হঠাৎই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়ে গর্ভপাতের আর্জি জানান। ওই তরুণীর দাবি, যে সন্তান তাঁর গর্ভে রয়েছে তার বাঁচার সম্ভাবনা খুবই কম। কারণ তার স্বাভাবিক বিকাশই হচ্ছেনা। ‌যেহেতু ভারতের আইন ভ্রূণের ২০ সপ্তাহ বয়স পর্যন্ত শর্তসাপেক্ষে গর্ভপাতের অনুমতি দেয় তাই ২৪ সপ্তাহ পার করা ভ্রূণের গর্ভপাত করাতে কেনও হাসপাতাল বা ক্লিনিক রাজি হচ্ছেনা। সুপ্রিম কোর্ট তাঁর আর্জি বিবেচনা করে গত শুক্রবার একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে। সেই বোর্ড জানায় যে ভ্রূণের বিকাশ হলেও তার মাথার খুলি ঠিকমত তৈরি হয়নি। ফলে তার বাঁচার আশা অত্যন্ত ক্ষীণ। সোমবার আদালত সেই রিপোর্ট পর্যালোচনার পর মায়ের জীবনের কথা মাথায় রেখে ওই তরুণীরে গর্ভপাতের অনুমতি দেয়। প্রসঙ্গত ওই তরুণী আগেই তাঁর বাগদত্তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছেন। তাঁর দাবি, বাগদত্তা যুবক তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থান করলেও পরে অন্য মহিলাকে বিয়ে করেন। সেই মামলা এখনও চলছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.