National

ঐতিহাসিক রায়, সরকারকে দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে বলল শীর্ষ আদালত

এতদিন ভারতীয় সেনাবাহিনীতে শর্ট সার্ভিস কমিশন ছিল মহিলা আধিকারিকদের জন্য। স্বাধীনতার পর থেকে চলে আসা এই রীতি কোথাও গিয়ে পুরুষ, মহিলা ভেদটা বজায় রাখছিল ভারতীয় সেনায়। এই লিঙ্গ বৈষম্য এবার দূর করার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। সেইসঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারকেও তাদের দৃষ্টিভঙ্গিতে বদল আনতে পরামর্শ দিল আদালত। মহিলাদের জন্য ভারতীয় সেনাবাহিনীতে স্থায়ী কমিশন গড়ার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের বেঞ্চ।

এখন ভারতীয় সেনায় মহিলা আধিকারিকদের ক্ষেত্রে শর্ট সার্ভিস কমিশন ছিল। তাতে ১৪ বছর ছিল সময়সীমা। কিন্তু ভারতীয় সেনা পুরুষ আধিকারিকরা পেতেন স্থায়ী কমিশনের সুযোগ। এই লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে আদালতে যান মহিলা আধিকারিকরা। সোমবার তাঁদেরই জয় হল। সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রকে নির্দেশ দিয়েছে মহিলা আধিকারিকদের স্থায়ী কমিশনের আওতায় আনতে হবে। এজন্য ৩ মাস সময় দিয়েছে আদালত।

শীর্ষ আদালত পরিস্কার করে দিয়েছে যে যে মহিলা আধিকারিক ১৪ বছরের কম কাজ করেছেন বা তার বেশি সময় কাজ করছেন তাঁদের এই স্থায়ী কমিশনের আওতাধীন করতে হবে। এরফলে পুরুষ ও নারী ভারতীয় সেনায় সমান গুরুত্বের অধিকারী হবেন। মহিলা সেনা আধিকারিকরা কমান্ড পোস্টের সুবিধাও পাবেন। ভারতীয় সেনায় মহিলা আধিকারিকরাও কঠিন শ্রম করে চলেছেন বলে জানায় আদালত। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button