World

১০০ বছরে এমন গরম পড়েনি, ২০ বছরের মধ্যে বয়নি এমন তাপপ্রবাহ

এ গরম দেশের মানুষ দেখেননি। বিকিনি বা বারমুডাতে জলে বসে থেকেও গরম থেকে রেহাই মিলছেনা। অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অনেকে।

যেসব অঞ্চলে গরমটা স্বাভাবিক সেখানে পারদ চড়ার সঙ্গে স্থানীয় মানুষ লড়াই করে অভ্যস্ত। কিন্তু যেখানে এভাবে গরম দাপুটে ইনিংস খেলে না সেখানে অস্বাভাবিক গরম পড়লে তা সহনীয় হয়না। এমনটাই হয়েছে ইউরোপের অন্যতম দেশ স্পেনে।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

স্পেনে জুন মাসে এতটাই গরম পড়েছে যে তা শতবর্ষের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। গত ২০ বছরে এমন তাপপ্রবাহের গ্রাসেও পড়তে হয়নি স্পেনকে।

এবার সেখানে পারদ চড়েছে ৪০ ডিগ্রির ওপর। যা পূর্বাভাস তাতে কয়েকটি জায়গায় ৪৪ ডিগ্রি ছাড়াতে পারে পারদ। আগুনে গরমে তাপপ্রবাহ চলছে বিভিন্ন শহর গ্রামে।

সেখানে মানুষের বাড়ি থেকে বার হওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। জলে বিকিনি পড়ে বা বারমুডা পড়ে বসে থেকেও গরম থেকে রেহাই মিলছে না।

দক্ষিণ স্পেনের অবস্থা সবচেয়ে শোচনীয়। সেখানে মানুষ গরম থেকে কীভাবে বাঁচবেন তার উপায় বার করে উঠতে পারছেন না। কাজ করতে বাড়ি থেকে বার হতেই হচ্ছে। আর তখনই পড়তে হচ্ছে অস্বাভাবিক গরমের কবলে।

স্পেনের আবহাওয়া দফতরও স্বীকার করে নিয়েছে এমন গরম একেবারেই স্বাভাবিক নয়। সাধারণ মানুষকে গরম থেকে বাঁচার নানা উপায় বলা হচ্ছে। তারপরেও বহু মানুষ গরমে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।

এদিকে গরম এতটাই বেড়েছে যে স্পেন জুড়ে দাবানলের সম্ভাবনার কথা জানিয়ে দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। এই গরমের পর দাবানল লাগলে জঙ্গল লাগোয়া বাসিন্দাদের গরমে বেঁচে থাকাই দুষ্কর হবে। তাছাড়া বহু বনাঞ্চলের ক্ষতি হতে পারে দাবানলে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button