SciTech

সারারাত এক মহাজাগতিক বিস্ময় দেখল পৃথিবী, ফের দেখা যাবে ১০৭ বছর পর

এক মহাজাগতিক বিস্ময়ের সাক্ষী হলেন বিশ্বের মানুষ। সন্ধে নামতেই যা নজর কাড়ল। দুচোখ ভরে সেই চমৎকার উপভোগ করলেন অনেকেই। সারারাত চলল আকাশে চোখ রাখা।

মহাজগতে কত কিছুই হতে থাকে। যার অনেক কিছুই সাধারণ মানুষের চোখের সীমার মধ্যে পড়েনা। তবে তার মধ্যে গুটিকয়েক বিস্ময় এমনও ঘটে যা মানুষের দেখার সৌভাগ্য হয়। তেমনই এক বিস্ময় সোমবার সন্ধে নামা থেকে সারা রাত ধরে চলল আকাশে।

খালি চোখে না দেখা গেলেও এই বিস্ময় প্রত্যক্ষ করা খুব কঠিন হল না। বাড়িতে ভাল বাইনোকুলার থাকলেই আর এই মহাজাগতিক বিস্ময় ধরা ছোঁয়ার বাইরে রইল না। বরং সহজেই পরিবারের সকলে মিলে তা প্রাণ ভরে দেখার সুযোগ পেলেন।

সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে এল সৌরমণ্ডলের সবচেয়ে বড় গ্রহ বৃহস্পতি। যাঁরা ৪ ইঞ্চির বেশির টেলিস্কোপে চোখ রাখার সুযোগ পেলেন তাঁরা বৃহস্পতির লাল বিন্দু থেকে তার উপগ্রহদেরও দেখার সুযোগ পেলেন।

পৃথিবীর এত কাছে বৃহস্পতি ফের আসবে ২১২৯ সালে। আজ থেকে ১০৭ বছর পর। এই শতাব্দীতে এদিনই বৃহস্পতি পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে এল।

বৃহস্পতি পৃথিবী থেকে সবচেয়ে যখন দূরে থাকে তখন তা থাকে ৬০০ মিলিয়ন মাইল দূরে। আর যখন সবচেয়ে কাছে আসে তখন তা থাকে ৩৬৫ মিলিয়ন মাইল দূরে।

এদিন বৃহস্পতির অবস্থান ছিল পৃথিবী থেকে ৩৬৫ মিলিয়ন মাইল দূরে। যা মহাজগতের হিসাবে একেবারেই এমন কিছু দূরে নয়।

বৃহস্পতি সূর্যকে একবার প্রদক্ষিণ করতে সময় নেয় ১১ বছর। এভাবেই হিসাব হয় তার পৃথিবীর কাছাকাছি আসাও। মঙ্গলবার ভোর পর্যন্ত সেই ঐতিহাসিক ক্ষণ পার হল। বৃহস্পতি ঘুরে গেল পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button