Entertainment

কলেজ জীবনে পয়সা না থাকা সত্ত্বেও ট্যাক্সিতে চড়ার কাহিনি আজও ভেলেননি সলমন খান

তখন তিনি কলেজে পড়েন। ট্যাক্সিতে চড়ার পয়সা পকেটে নেই। তাও একদিন চড়ে বসলেন একটি ট্যাক্সিতে। তারপরে যা হল তা এখনও ভোলেননি সলমন খান।

বলিউড সুপারস্টার তিনি। যে অর্থ রোজগার করেন অনেক ট্যাক্সি তিনি কিনে ফেলতে পারেন। কিন্তু যখন তিনি কলেজে পড়েন তখন ট্যাক্সিতে কলেজে যাওয়ার পয়সাও তাঁর পকেটে থাকত না। প্রতিদিন কলেজে যাতায়াত করতেন লোকাল ট্রেনে।

একদিন তাঁর ইচ্ছা হল ট্রেনে নয়, তিনি সেদিন ট্যাক্সিতে কলেজে যাবেন। কিন্তু পকেটে তো টাকাকড়ি কিছু নেই। তবু তিনি ট্যাক্সিতে চড়ে বসলেন। তারপর কলেজের কিছুটা আগে ট্যাক্সি দাঁড় করিয়ে দিলেন।

ট্যাক্সি চালককে এরপর খোলাখুলি জানালেন তাঁর কাছে টাকা নেই। তিনি পাশের একজনের কাছ থেকে নিয়ে এসে দিচ্ছেন। কিন্তু তিনি ট্যাক্সি থেকে নামার পর আর তিনি ফেরত আসেননি ভাড়া মেটাতে।

এরপর অনেক দিন কেটে গেছে। তখন তিনি মডেলিং করছেন। রোজগারও করতে শুরু করেছেন। একদিন তিনি বাড়ি ফেরার জন্য একটি ট্যাক্সিতে চেপে বসেন।

বলিউড সুপারস্টার সলমন খান তাঁর সিনেমার প্রচারে এসে একটি টিভি শো-তে নিজের জীবনের এই অজানা কাহিনি ভাগ করে নেন সকলের সঙ্গে।

সলমন জানান, ট্যাক্সিটিতে চড়ে বসার পর বাড়ির দিকে এগোনোর সময় একাধিকবার ওই ট্যাক্সি চালক তাঁকে বলতে থাকেন ঠিক মনে না পড়লেও সলমনকে তাঁর চেনা লাগছে। সলমন তখন কিন্তু চেনা মুখ নন। সাধারণ আর পাঁচটা মানুষের মতই একজন।

সলমন ট্যাক্সি চলাকালীন কিছু বলেননি। বাড়ির সামনে ট্যাক্সিটি পৌঁছলে এবার সলমন ওই ট্যাক্সি চালককে জানান, তিনি ওই ভাড়ার টাকাটা জোগাড় করতে পেরেছেন। ট্যাক্সি চালক এবার ঘুরে পিছনের সিটে বসা সলমনকে ভাল করে দেখেন।

২ জনই একে অপরের মুখের দিকে চেয়ে হেসে ওঠেন। সলমন জানান, তিনি সেদিন সেই না মেটানো ভাড়া সহ অতদিনে যা সুদ হয়েছিল সেই টাকাও মিটিয়ে দেন ওই ট্যাক্সিচালককে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button