World

চিত্রগ্রাহককে বাঁচাতে প্রাণ বাজি রেখে লাফ দিলেন মন্ত্রী

এক চিত্রগ্রাহককে বাঁচানোর জন্য তিনি নিজের জীবন পণ করে লাফ দেন। কিন্তু সেই লাফই শেষ লাফ হল জীবনের। প্রাণ হারালেন মন্ত্রী।

চলছিল একটি ট্রেনিং প্রোগ্রাম। পাহাড়ি জায়গায় চলছিল কাজ। রাশিয়ার আর্কটিক শহর নোরিস্ক-এ চলা এই সরকারি উদ্যোগে উপস্থিত ছিলেন রাশিয়ার আপৎকালীন বিষয়ক মন্ত্রী ইয়েভগেনি জিনিচভ।

চারধারে খাড়াই পাহাড়, গভীর খাদ। উপত্যকার অনেক জায়গায় রয়েছে জল। এমনই এক দুর্গম জায়গায় চলছিল কাজ। সেখানে একটি খাড়াই পাহাড়ের একদম ধারে দাঁড়িয়েছিলেন মন্ত্রী ও এক চিত্রগ্রাহক।

এই সময় আচমকাই পা পিছলে যায় চিত্রগ্রাহকের। জিনিচভ দেখেন তাঁর পাশে দাঁড়ানো চিত্রগ্রাহক পাহাড়ের খাড়াই ঢাল বেয়ে পড়ে যাচ্ছেন।

সময় নষ্ট না করে তাঁকে বাঁচাতে কার্যত লাফ দেন জিনিচভ। কিন্তু তিনিও টাল রাখতে পারেননি। সোজা পড়তে থাকেন নিচের দিকে।

পাহাড়ের একদম তলদেশে রয়েছে জল। অনেকেই মনে করেছিলেন যে হয়তো জলে পড়লে বেঁচে যাবেন তিনি। হয়তো সেটাই হত। কিন্তু জিনিচভ গিয়ে পড়েন জলের ওপর জেগে থাকা একটি পাথরের চাতালে। আর বাঁচার কোনও সম্ভাবনা ছিলনা।

৫৫ বছরের রাশিয়ার আপৎকালীন বিষয়ক মন্ত্রীর মৃত্যু হয় ঘটনাস্থলেই। যে খবর নিশ্চিত করেছেন স্বয়ং দেশের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

জীবনের শুরুতে কেজিবি-র হয়ে কাজ করতেন। তখন পূর্বাতন সোভিয়েত ইউনিয়ন। পরে ভ্লাদিমির পুতিন ক্ষমতায় আসার পর জিনিচভও তাঁর হাত ধরে রাশিয়ার প্রশাসনিক অলিন্দে জায়গা করে নেন।

২০১৮ সালে রাশিয়ার আপৎকালীন বিষয়ক মন্ত্রী হন ইয়েভগেনি জিনিচভ। তাঁর এই মৃত্যু মেনে নিতে পারছেননা অনেকেই। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button