Entertainment

রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটদের চাঙ্গা করছে মহম্মদ রফির গান

সব দেশেই সেনাবাহিনীকে উদ্বুদ্ধ করার জন্য দেশাত্মবোধক গান তৈরি হয়। গাওয়া হয়। যা সেনাবাহিনীকে নতুন করে উজ্জীবিত করে। দেশাত্মবোধ জাগ্রত হয়। ভারত স্বাধীন হওয়ার পর ভারতীয় কণ্ঠশিল্পীদের গলায় আর বিশিষ্ট সুরকারদের সুরে এমন অনেক গান ভারতীয় সেনাকেই নয়, দেশবাসীকেও জাতীয়তাবাদে উদ্বুদ্ধ করে তোলে। গায়ের রোম খাড়া করে দেওয়া সেসব গান দেশের মানুষের মধ্যে এক অন্য শক্তি জোগায়। ভারতীয় সিনেমায় ব্যবহৃত এমনই একটি গান এবার একসঙ্গে গাইলেন রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটরা। রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটদের উদ্বুদ্ধ করছে ভারতীয় সিনেমার দেশাত্মবোধক গান। এ অবশ্যই ভারতীয় হিসাবে যে কোনও মানুষের কাছে গর্বের।

১৯৬৫ সালে তৈরি হয় সিনেমা ‘শহীদ’। সেই সিনেমায় মহম্মদ রফির কণ্ঠে একটি গান জনপ্রিয়তার শিখরে ওঠে। দেশাত্মবোধক সেই গানটি ছিল ‘অ্যায় বতন, অ্যায় বতন, হামকো তেরি কসম, তেরি রাহোঁ মে জান তক লুটা জায়েঙ্গে’। গানটি এতটাই জনপ্রিয় হয় যে ভারতে এখনও তা ১৫ অগাস্ট বা ২৬ জানুয়ারিতে শোনা যায়। এখনও এই গান ভারতীয়দের শিহরিত করে। কিন্তু সেই গান যে রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটদেরও উদ্বুদ্ধ করতে পারে তা না দেখলে হয়তো বিশ্বাস করতে পারতেন না কেউ।

রাশিয়ার সেনা ক্যাডেটরা একসঙ্গে গাইছেন ‘অ্যায় বতন, অ্যায় বতন, হামকো তেরি কসম, তেরি রাহোঁ মে জান তক লুটা জায়েঙ্গে’। গানের সুরে তাঁরা উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন। এ এক পরম প্রাপ্তি। সেই ভিডিও এখন ভাইরাল। ভারতে সবচেয়ে বেশি ভাইরাল সেই ভিডিও। রাশিয়ার মত দেশের সেনা ক্যাডেটদের এই গান গাইয়ে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে, তাঁদের মধ্যে দেশাত্মবোধ জাগ্রত করা হচ্ছে, এটা দেখে আপ্লুত ভারতবাসী। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button