Entertainment

মেয়েকে ধাক্কা মারতেই চটে লাল রবিনা ট্যান্ডন

তাঁর মেয়েকে ধাক্কা মারতেই রেগে আগুন হয়ে গেলেন অভিনেত্রী রবিনা ট্যান্ডন। তাঁর হাসি মুখ নিমেষে বদলে যায়। মেয়ের সঙ্গে যা ঘটল তাতে রীতিমত ক্ষুব্ধ অভিনেত্রী।

বেশ ছিলেন খোশ মেজাজে। কিন্তু নিমেষের মধ্যে তাঁর মেজাজ গেল বদলে। কারণটা পাশে থাকা মেয়ের সঙ্গে এক আচরণ। তারপর কিন্তু রবিনা রেগে আগুন এক মায়ের ভূমিকা নিলেন। কি ঘটেছিল?

ঘটনাটি ঘটে মুম্বই বিমানবন্দরে। সবে রাষ্ট্রপতি ভবনে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর হাত থেকে দেশের চতুর্থ সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান পদ্মশ্রী পেয়েছেন রবিনা। সেই সম্মান প্রাপ্তির পর তিনি মেয়ে রাশা থাড়ানিকে সঙ্গে করে মুম্বই বিমানবন্দরে নামার পর হেঁটে আসছিলেন।

পরনে ছিল নীল রংয়ের পোশাক। হাতে পদ্মশ্রী সম্মান। পদ্ম সম্মানপ্রাপ্ত অভিনেত্রীকে সামনে পেয়ে অনেকেই ছবি তুলতে থাকেন। হাসি মুখে ছবিও দিতে থাকেন রবিনা। কোনও আপত্তিও করেননি।

সমস্যা হল এক ব্যক্তির অতি উৎসাহে এগিয়ে আসা। তিনি রবিনার সঙ্গে সেলফি নেওয়ার জন্য এগিয়ে আসেন। কিন্তু ঠিক ফ্রেমে পাচ্ছিলেন না অভিনেত্রীকে।


তাই রবিনার কাছ পর্যন্ত পৌঁছতে রবিনার পাশে থাকে রাশাকেই ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেন। তারপর সেলফি নেওয়ার চেষ্টা করেন।

মেয়েকে যে ওই ব্যক্তি ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিয়েছেন তা দেখেই রেগে লাল হয়ে ওঠেন রবিনা। হিন্দিতে সাফ জানান, আপনি ধাক্কা দেবেন না, বাচ্চাদের ধাক্কা দেবেন না।

রবিনার এই রেগে যাওয়ার পর দ্রুত সরে যান ওই ব্যক্তি। রবিনাও আর ছবি দিতে আগ্রহ দেখাননি। বরং রেগেই দ্রুত গাড়িতে চেপে বসেন। মেয়েকে নিয়ে সেই গাড়ি বিমানবন্দর ছাড়ে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button