National

প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি, বাড়ছে ফুসফুসের সংক্রমণ

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি হল বুধবার। তাঁর ফুসফুসে সংক্রমণ আরও ছড়িয়ে পড়েছে।

নয়াদিল্লি : মস্তিষ্কের জটিল অস্ত্রোপচারের পর থেকে টানা ভেন্টিলেশন সাপোর্ট সিস্টেমে রয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। তবে গত ২ দিনে তিনি চিকিৎসায় সাড়া দিতে শুরু করেছেন বলে জানা যাচ্ছিল। যদিও তাকে শারীরিক অবস্থার উন্নতি বলা যায়না। তবে অবনতিও হয়নি। প্রায় একই অবস্থায় ছিলেন তিনি। বুধবার কিন্তু তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হল। বুধবার দিল্লির সেনা হাসপাতালে ভর্তি প্রবণবাবুর শারীরিক অবস্থার কথা হাসপাতালের তরফে যা জানানো হয়েছে তাতে তাঁর অবস্থার অবনতি হয়েছে।

হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির ফুসফুসে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। তাঁকে চিকিৎসকদের একটি দল সর্বক্ষণ পর্যবেক্ষণে রেখেছে। প্রণববাবুর ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় আগে জানিয়েছিলেন তাঁর বাবার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। তাঁর দেহের ভাইটাল প্যারামিটার নিয়ন্ত্রণে আছে। ফলে তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতির লক্ষ্মণ দেখা যাচ্ছে। ট্যুইট করে বুধবার সকালেই একথা জানান অভিজিৎবাবু। সকলকে তাঁর বাবার দ্রুত আরোগ্যের জন্য প্রার্থনাও করতে অনুরোধ করেন তিনি।


মুহুর্তে পান আপডেট, Join আমাদের WhatsApp Channel

গত ১০ অগাস্ট রাতে বাথরুমে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পান প্রণব মুখোপাধ্যায়। তাঁকে সেনা হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাঁর করোনাও ধরা পড়ে। এদিকে মাথায় রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ায় দ্রুত তা বার করতে তাঁর মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। সেই অস্ত্রোপচার ঠিকঠাক হলেও তারপর থেকেই তাঁকে ভেন্টিলেশনে দিতে হয়। এখনও সেখানেই রয়েছেন তিনি।

গত ১০ অগাস্ট হাসপাতালে আনার পর তাঁর করোনা ধরা পড়ার পর কিন্তু প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি নিজেই জানান তিনি যেহেতু করোনা পজিটিভ তাই গত এক সপ্তাহের মধ্যে যাঁরাই তাঁর সংস্পর্শ এসেছিলেন তাঁরা যেন নিজেদের আলাদা করে নেন। দ্রুত করোনা পরীক্ষা করিয়ে নেন। প্রণব মুখোপাধ্যায় প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হওয়া ছাড়াও দেশের অর্থমন্ত্রীর পদ সামলেছেন একাধিকবার। তাঁকে এখনও কংগ্রেসের কৌটিল্য বলেই ধরে নেওয়া হয়। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করার পর থেকেই উদ্বেগে তাঁর বীরভূমের গ্রামের মানুষ। সেখানে তাঁর দ্রুত সুস্থতা কামনা করে পুজো অর্চনাও হয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *