National

দেশের নাম বদলের দাবিতে সুর চড়ালেন সাংসদ

দেশের নাম বদল করা দরকার। এই দাবি জানিয়ে সংসদে সুর চড়ালেন এক বিজেপি সাংসদ। কেন তিনি এমন দাবি করছেন তার সপক্ষে যুক্তিও জানিয়েছেন সাংসদ।

ইন্ডিয়া দেশের নাম হলেও এই নামে লুকিয়ে আছে ঔপনিবেশিক দাসত্ব। ইন্ডিয়া নামটা ব্রিটিশদের দেওয়া। প্রাচীনকালে এই দেশ পরিচিত ছিল ভারত বলে। সংস্কৃত ভাষায় বিভিন্ন পুরাতনি লেখায় ভারত নামের উল্লেখ পাওয়া যায়।

ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শক্তি এ দেশে আসার পর তারা ভারত নামটা বদলে দেশের নাম ইন্ডিয়া করে দেয়। যা আদপে দাসত্বের চিহ্ন বহন করছে। সংবিধানের ১ নম্বর ধারায় ইন্ডিয়া কথাটা লেখাও রয়েছে। তাই এই ইন্ডিয়া নাম অবিলম্বে সংবিধান থেকে বাদ দেওয়া উচিত।

সাংসদ আরও বলেন, এই দেশের আদি নাম ছিল ভারত। তাই ইন্ডিয়া নামটি মুছে দিয়ে এই দেশের নাম ভারত করা উচিত। বিজেপি সাংসদ নরেশ বনসল এই প্রস্তাব সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় পেশ করেন। নরেশ বনসলের প্রস্তাবে রীতিমত আলোড়ন সৃষ্টি হয় সংসদ কক্ষে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গত বছর ১৫ অগাস্টের ভাষণে সংবিধানের ১ নম্বর ধারা থেকে ইন্ডিয়া নামটি বাদ দিয়ে কেবল ভারত রাখার কথা বলেছিলেন। সেদিন প্রধানমন্ত্রী যে ঔপনিবেশিক চিহ্নগুলি মুছে ফেলার ওপর জোর দেন এমন কথাও বলেন বিজেপি সাংসদ।


ঔপনিবেশিকতা মুক্ত ভারতের প্রাচীন ঐতিহ্য বজায় রেখে দেশের নাম ইন্ডিয়া থেকে ভারত করা হলে তা এক উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ হিসাবে বিবেচিত হবে বলেও জানান সাংসদ।

প্রসঙ্গত হালে বিজেপি বিরোধী দলগুলি একজোট হয়ে ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইনক্লুসিভ অ্যালায়েন্স বা ইন্ডিয়া গড়ে তুলেছে। বিজেপি সাংসদের দেশের নাম বদলের মধ্যে এই বিরোধী জোটের নামটির প্রতিও এক প্রচ্ছন্ন খোঁচা লুকিয়ে আছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button