National

দলিত যুবকদের মার, অগ্নিগর্ভ গুজরাট

৪ দলিত যুবককে মারধরের ঘটনায় ক্রমশই উত্তপ্ত হচ্ছে গুজরাট। সরকারের বিরুদ্ধে ক্রমশই চড়ছে ক্ষোভের পারদ। অবস্থা আঁচ করতে পেরে বুধবার গুজরাটের উনায় ওই ৪ যুবকের বাড়ি যান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আনন্দিবেন প্যাটেল। কথা বলেন তাঁদের পরিবারের সঙ্গে। পরে তিনি জানান শুধু ওই ৪ যুবকের পরিবারই নয়, সরকারি সব ধরণের সুযোগ পাবেন মোতা সামাধিয়ালা গ্রামের ২৫টি দলিত পরিবার। তাঁদের বাড়ি, বাথরুম সবই বানিয়ে দেবে সরকার। গ্রামে ক্যাম্প করে সরকারি সব ধরণের সুযোগ তাঁদের হাতে তুলে দেবে তাঁর সরকার। এদিকে এই ৪ দলিত যুবককে মারধরের ঘটনায় এদিন গুজরাটের একটা বড় অংশ বন্‌ধ পালিত হয়েছে। বন্‌ধের ডাক দিয়েছিল রাজ্যের দলিত সংগঠনগুলি। বন্‌ধের জেরে অনেক জায়গায় দোকানপাট ছিল বন্ধ। চলেনি যানবাহনও। সৌরাষ্ট্র এলাকায় বন্‌ধের প্রভাব ছিল সর্বাধিক। এখানে স্কুল, কলেজ বন্ধ ছিল। সরকারি বাসও রাস্তায় বড় একটা নামেনি। দলিত নিগ্রহের ঘটনায় সংসদেও বিক্ষোভের ঝড় ওঠে। কংগ্রেস সাংসদরা প্রতিবাদে ওয়াকআউটও করেন। ঘটনার সূত্রপাত গত ১১ জুলাই। সৌরাষ্ট্র এলাকার উনায় মৃত গরুর ছাল ছাড়ানোর অভিযোগে ৪ যুবককে গণপ্রহার করা হয়। এতে রাজ্য জুড়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন দলিতরা। শেষ এক সপ্তাহে রাজ্যে ১১ জন যুবক প্রতিবাদে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। যারমধ্যে ১ যুবকের মৃত্যুও হয়। ফলে ক্রমশ বিক্ষোভ চরম আকার ধারণ করে। এদিকে ৪ দলিত যুবককে প্রহারের ঘটনায় সিআইডি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে গুজরাট সরকার।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.