National

গণবিবাহে বর নেই, নিজেদের মালা পরিয়ে বিয়ে সারলেন কনেরা

গণবিবাহে যে এতবড় জালিয়াতি হতে পারে তা কল্পনাও করতে পারেননি কেউ। যা এবার প্রকাশ্যে এল। বর নেই। কনেদের অনেকেই নিজেদের গলায় মালা পরালেন।

কোনও ক্লাব বা প্রতিষ্ঠানের তরফে করা গণবিবাহ নয়, একেবারে সরকারি গণবিবাহের অনুষ্ঠান। সেখানে এমন ঘটনা ঘটল যা সারা দেশে হইচই ফেলে দিয়েছে। ওই গণবিবাহের দায়িত্বে থাকা আধিকারিকরা দাবি করেছিলেন যে ওই গণবিবাহের অনুষ্ঠানে ৫৬৮ জোড়া বরকনে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।

কিন্তু একটি ছবি সামনে আসার পর এমন এক কাহিনি সামনে এল যা অনেকের চোখ কপালে তুলেছে। ছবিতে দেখা যায় লাইন দিয়ে দাঁড়ানো বেশ কয়েকজন কনে নিজেদের গলা থেকে মালা খুলে নিজেদেরই আবার পরাচ্ছেন। সামনে বর নেই। মালাবদল হচ্ছেনা। নিজেরাই মালা খুলছেন আর পরছেন। এখান থেকেই খোঁজখবর নেওয়ার সূত্রপাত।

ঠিক কি ঘটেছে তার তদন্তে নেমে সরকারেরই মাথা ঘুরে গেছে। কয়েকজন যুবকও স্বীকার করেছেন তাঁরা বিয়ে দেখতে এসেছিলেন। কিন্তু তাঁদের ডেকে ২ থেকে ৩ হাজার টাকা দেওয়ার প্রলোভন দেখানো হয়।

শর্ত একটাই বর সেজে দাঁড়াতে হবে। বিয়ে হবেনা। কেবল সেজে দাঁড়াতে হবে। এতে কয়েকজন রাজিও হন। তাঁদের সামনে কনে ছিলেন না। তাঁরা কেবল বর সেজেছিলেন।


ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বালিয়ায়। বালিয়ার জেলাশাসক রবীন্দ্র কুমার জানান, উত্তরপ্রদেশ সরকারের তরফে এই গণবিবাহ আয়োজনে বরাদ্দ অর্থের সঠিকভাবে ব্যবহার হয়নি।

৯ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। যার মধ্যে সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট ডেভেলপমেন্ট অফিসারও রয়েছেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button