National

১৭১ বছরের ইতিহাসে ইতি টেনে ভারতের মুকুটে নতুন পালক

১৭১ বছরের ইতিহাস। কম কথা নয়। ব্রিটিশ যুগের সেই ইতিহাসে এবার ইতি টানা হল। সে জায়গায় শুরু হল নতুন এক পথচলা।

তখন ব্রিটিশ আমল। পরাধীন ভারতের সিমলা ছিল ব্রিটিশদের গ্রীষ্মকালীন ছুটি কাটানোর জায়গা। শৈল শহর সিমলাকে তাই নিজেদের প্রয়োজনেই অনেকটা সাজিয়ে নিয়েছিল ব্রিটিশ প্রশাসন। যাতায়াতের সুবিধার দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছিল। সুগম পথচলা নিশ্চিত করতে তৈরি হয়েছিল টানেলও।

১৮৫২ সালে ব্রিটিশরা সিমলায় একটি টানেল তৈরি করে। টানেলটি ছিল সিঙ্গলওয়ে। তার আয়ুষ্কালও শেষ হয়ে গিয়েছিল। তারপরেও টানেলটি ব্যবহার হচ্ছিল। টানেলে গাড়ির চাপও বাড়ছিল। ফলে ওই টানেল পার করার জন্য গাড়ির দীর্ঘ লাইন পড়ছিল।

এসব সমস্যার কথা মাথায় রেখে এবং টানেলের আয়ুর দিকে নজর রেখে, সাঞ্জাউলি-ঢালি নতুন টানেল তৈরি করে সরকার। ১৫৪.২২ মিটার টানেলটি নতুন করে তৈরি করা হয়েছে। যার উদ্বোধন করেন হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী সুখবিন্দর সিং সুখু।

নতুন টানেল তৈরির পর এখন ওই টানেল দিয়েই গাড়ি চলাচল করবে। পুরনো টানেলটিকে মেরামত করা হবে। এই মেরামতির কাজ শুরু হবে। অর্থাৎ ১৭১ বছরের ওই ঐতিহাসিক টানেলকে একেবারেই বন্ধের পথে হাঁটছে না সরকার।


বরং তাকে সারিয়ে ঠিকঠাক করা হচ্ছে। তবে আগামী দিনে এই পুরনো টানেলকে কীভাবে ব্যবহার করা হবে তা এখনও বোঝা যাচ্ছেনা।

তবে নতুন টানেল তৈরির পর স্থানীয় বাসিন্দা থেকে পর্যটক সকলেরই যাতায়াত অনেক সুগম হয়ে গেল। প্রসঙ্গত সিমলায় পর্যটকের ভিড় লেগেই থাকে। বড়দিনের সিমলায় উপচে পড়েছে পর্যটকের ভিড়।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button