National

ইঁদুরের গর্ত ১৭ দিনের সুড়ঙ্গবাস থেকে মুক্তি দিতে চলেছে ৪১ শ্রমিককে

৪১ জন শ্রমিক ১৭ দিন ধরে আটকে আছেন একটি সুড়ঙ্গে। না পিছোতে পারছেন। না এগোনোর পথ আছে। সেখান থেকে তাঁদের ১৭ দিন পর মুক্তির আলো দেখাল ইঁদুরের গর্ত।

উত্তরাখণ্ডের উত্তরকাশীর সিল্কিয়ারা সুড়ঙ্গে আটকে পড়েন ৪১ জন শ্রমিক। সুড়ঙ্গ খনন করার সময় তাঁরা আটকে পড়েন সেখানে। না তাঁরা এগোতে পারছিলেন। না পারছিলেন পিছোতে। সুড়ঙ্গের মধ্যে পাথর ভেঙে পড়ে ২ ধার থেকে আটকা পড়েন তাঁরা। অন্ধকূপে শুরু হয় ৪১ জনের বাঁচার লড়াই।

তাঁদের কাছে পৌঁছনোর চেষ্টা বিফল হতে থাকে। আটকে পড়া পাথর যন্ত্র দিয়ে কাটতে গিয়ে যন্ত্রই বিকল হয়ে যায়। অগত্যা শুরু হয় পাহাড়ের মাথা থেকে একটি উলম্ব গর্ত কেটে সেখান দিয়ে আটকে পড়া শ্রমিকদের বার করে আনার চেষ্টা। কিন্তু তাতেও যে খুব ভরসা ছিল তা নয়। তাই নেওয়া হয় ব়্যাট হোল বা ইঁদুর গর্ত পদ্ধতিতে শ্রমিকদের রক্ষার চেষ্টা।

এদিকে শ্রমিকদের জীবন রক্ষা করতে তাঁদের পর্যাপ্ত অক্সিজেন, খাবার দেওয়া হতে থাকে একটি সরু পথ তৈরি করে। কিন্তু তা দিয়ে খাবার পৌঁছনো যায়, অক্সিজেন পাঠানো যায়, মানুষকে বার করে আনা যায়না।

মঙ্গলবার আটকে থাকা শ্রমিকদের বন্দিদশা ১৭ দিনে পা দিল। এদিনই প্রথম আশার আলো স্পষ্ট হল। শ্রমিকদের কাছে পৌঁছে গেলেন ইঁদুর গর্ত তৈরি করা উদ্ধারকারীরা।

উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামী জানান, শ্রমিকদের বার করা আর কয়েক মুহুর্তের অপেক্ষা। এই ইঁদুর গর্ত তৈরি করে একটি পাইপ বসানো হয়। সেই পাইপ ধরেই এবার বেরিয়ে আসবেন শ্রমিকরা। একথাও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button