National

চা বিক্রেতা পাপ্পুর শরীর কেমন আছে, ফোন এল প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে

দেশে চা বিক্রেতার সংখ্যা কত তার উত্তর জানতে চাইলে বলা মুশকিল। সেখানে এক চা বিক্রেতা অসুস্থ হওয়ায় তিনি কেমন আছেন জানতে ফোন এল প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে।

একে সবে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন। শরীর দুর্বল। তাতে আবার একটা ফোনের খবর রাতের ঘুমও কেড়ে নিয়েছে এক চা বিক্রেতার। অবশ্য ফোনের জন্য ঘুম উড়ে যাওয়াটা কষ্টে নয়, আনন্দে। ভারতে কতজন চা বিক্রেতা রয়েছেন তার সংখ্যা বলে ওঠা কার্যত অসম্ভব। অলিগলিতে ছড়িয়ে আছে চায়ের দোকান। এমন অগুন্তি চা বিক্রেতাদেরই একজন পাপ্পু।

পাপ্পু তাঁর ডাকনাম। আসল নাম বিশ্বনাথ সিং। বাবা বিশ্বনাথের ধাম বারাণসীতেই তাঁর চায়ের দোকান। বারাণসীর অসি এলাকায় তাঁর দোকান।

৫ দিন আগে তাঁর জ্বর আসে। গত ৩ নভেম্বর তাঁর শরীর এতটাই খারাপ হয় যে তাঁকে নিয়ে তাঁর ছেলে মনোজ সিং মা করুণাময়ী হাসপাতালে হাজির হন। সেখানে বিশ্বনাথ সিংকে পরীক্ষা করে দেখার পর চিকিৎসকেরা তাঁকে কিছুটা সুস্থ করে তুলে বাড়ি পাঠিয়ে দেন। বিশ্রামে রাখতে বলেন।

মনোজ সিংয়ের দাবি, গত ৪ নভেম্বর তাঁর কাছে একটি ফোন আসে। ফোনটি আসে প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে। বিশ্বনাথ সিং এখন কেমন আছেন তা জানতে চাওয়া হয়। তাঁর শারীরিক অবস্থার খুঁটিয়ে খোঁজ নেয় প্রধানমন্ত্রীর দফতর।

একথা পরে বাবাকে জানানোর পর এখনও পাপ্পু চাওয়ালা ওরফে বিশ্বনাথ সিং বিশ্বাস করতে পারছেন না তাঁর শরীর কেমন আছে সে খোঁজ প্রধানমন্ত্রী নিয়েছেন।

এমনকি ছেলেকে এটাও কয়েক বার জিজ্ঞেস করে ফেলেছেন ফোনটা প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকেই এসেছিল তো? নাকি ভুয়ো! — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button