National

স্বর্ণঋণ সংস্থার ঋণ শোধ করেও জমা দেওয়া গয়না হাতে পেলেননা গ্রাহক

দেশে একাধিক স্বর্ণঋণ সংস্থা রয়েছে। তেমনই একটি সংস্থায় গয়না রেখে ঋণ করেছিলেন এক ব্যক্তি। পরে ঋণের পুরো অঙ্ক সুদ সহ শোধ করেও গয়না কিন্তু হাতে পেলেননা তিনি।

সোনার বিনিময়ে ঋণ, এমন অনেক ঋণদান সংস্থা ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে আছে। এমন অনেক সংস্থার বিজ্ঞাপনও টিভি, খবরের কাগজ, ইন্টারনেট, রাস্তার হোর্ডিং-এ দেখতে পাওয়া যায়। এমনই একটি ঋণপ্রদানকারী সংস্থায় বাড়ির গয়না জমা রেখে ঋণ নিয়েছিলেন এক ব্যক্তি।

সেই ঋণের অঙ্ক সুদ সমেত তিনি একটা সময়ের পর ফেরতও দিয়ে দেন। শর্ত অনুযায়ী তিনি সুদ সমেত ঋণ শোধ করে দিলে সংস্থাও তার বন্ধক রাখা সোনার গয়না ঋণগ্রহীতাকে ফেরত দিয়ে দেবে। তাই ঋণ শোধের যাবতীয় নথিপত্র নিয়ে ওই ব্যক্তি বন্ধক রাখা গয়না ফেরত নিতে সংস্থার শাখায় হাজির হন।

সেখানে পৌঁছে তাঁর মাথায় হাত পড়ে। তাঁকে ওই সংস্থার কর্মীরা জানান এক ব্যক্তি নাকি ইতিমধ্যেই তাঁর গয়না তুলে নিয়ে গেছেন। লখনউ শহরের মহানগর এলাকার ওই সংস্থার শাখার কর্মীরা মহেন্দ্র প্রতাপ সিং নামে ওই ব্যক্তিকে জানান, অনলাইনে আবেদন করে এক ব্যক্তি সংস্থার প্রদান করা রসিদ দেখিয়েই ওই গয়না নিয়ে যায়।

সংস্থার কর্মীরা আরও জানান, ওই ব্যক্তি একটি মোবাইল নম্বর ব্যবহার করেন যে নম্বরে সংস্থার তরফ থেকে ওটিপি গিয়েছিল। মহেন্দ্র প্রতাপ সিংয়ের দাবি, সংস্থা যে মোবাইল নম্বরের কথা বলছে সেটা তিনি যখন ঋণ নিয়েছিলেন তখন রেজিস্টার করা মোবাইল নম্বরটি নয়। কারণ সেই মোবাইল নম্বর তিনি ব্যবহার করেন। আর তাতে কোনও ওটিপি আসেনি।


এই ঘটনায় সংস্থার ওই শাখার কর্মীরা জড়িত বলে মনে করছেন প্রতারিত মহেন্দ্র প্রতাপ। তিনি পুলিশে অভিযোগও দায়ের করেছেন। পুলিশ ৪০৯ ও ৪২০ ধারায় মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button