National

নবরাত্রি আসছে, আলাদা হৃদরোগ বিভাগ খুলল হাসপাতাল

নবরাত্রি ভারতের বিভিন্ন প্রান্তেই যথেষ্ট সাড়ম্বরে পালিত হয়। গুজরাটে নবরাত্রি উপলক্ষে সনাতনি গরবা নাচে মেতে ওঠেন মানুষজন। সেকথা মাথায় রেখে আলাদা হৃদরোগ বিভাগ খুলল হাসপাতাল।

দুর্গাপুজো দরজায় কড়া নাড়ছে। বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজোর প্রস্তুতিও চলছে জোরকদমে। বাংলা যখন দুর্গাপুজোয় মেতে ওঠে তখন ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে নবরাত্রি পালিত হয়। গুজরাটে নবরাত্রি বিশেষ সাড়ম্বরে পালিত হয়। নবরাত্রি মানেই সেখানে গরবা নাচ। গরবা নাচ ছাড়া নবরাত্রি সেখানে অসম্পূর্ণ।

এই সনাতনি নৃত্যধারা যাতে নবরাত্রির সময় দক্ষতার সঙ্গে উপস্থাপিত করা যায় সেজন্য অনেক আগে থেকেই সেখানে বিভিন্ন বয়সের নারী পুরুষ অনুশীলনও শুরু করে দেন। যা এখন জোরকদমে চলছে। আর সেখানেই একটি কালো ছায়া এসে পড়েছে।

গত ২০ সেপ্টেম্বর থেকে এখনও গরবা নাচের প্রস্তুতি নিতে গিয়ে ১১ জন প্রাণ হারিয়েছেন। সবই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে। গরবা অনুশীলনে এই হৃদরোগ কিন্তু বয়স্কদের নয়, বরং ৪৫ বছরের নিচের নারী পুরুষের মধ্যে বেশি দেখা যাচ্ছে।

জামনগরের ১৯ বছরের এক ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র ও ২৪ বছরের জুনাগড়ের এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে গরবা নাচের সময়। মৃত্যু হয়েছে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে।


নবরাত্রিতে গরবা নাচের কথা মাথায় রেখে রাজকোট সিভিল হাসপাতালে ৫০টি বেডের আলাদা একটি হৃদরোগ ওয়ার্ড খোলা হয়েছে। সেখানে ২০টি পুরুষ, ২০টি মহিলা বেড রয়েছে।

আর ১০টি বেড রাখা হয়েছে সংকটজনক রোগীদের কথা মাথায় রেখে। গরবা নাচের সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হলে যাতে দ্রুত চিকিৎসা দেওয়া যায় সেজন্যই এই বন্দোবস্ত। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button