National

পরিবারের চোখে দেবী হয়ে গেল ২৬টি আঙুল নিয়ে জন্মানো কন্যা সন্তান

আর পাঁচটা শিশুর মতই ভূমিষ্ঠ হয়েছিল সে। জন্মানোর পর তাকে দেখে অবশ্য সকলের চোখ আটকে যায়। ২৬টি আঙুল রয়েছে তার শরীরে।

বাবা বাঙালি, মা রাজস্থানের বাসিন্দা। তাঁদেরই সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়। এখন সেই দুধের শিশু এক দেবী হয়ে উঠেছে। পরিবারের সকলের বিশ্বাস তাঁদের পরিবারে দেবী মনুষ্য দেহে জন্ম নিয়েছেন। ফলে কন্যা সন্তান এখন পরিবার সহ গোটা এলাকা জুড়েই দেবীর সম্মান পাচ্ছে। কারণটা অবশ্যই তার জন্মের পর চমকে ওঠার মত আঙুলের সংখ্যা।

বিশ্বজুড়েই এতগুলি আঙুল নিয়ে কোনও শিশুর জন্মানোর ঘটনা বিরলতম। হাত, পা মিলিয়ে ১০টি আঙুলের বেশি অনেক সময় অনেক শিশুর দেহেই দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু ২৬টি আঙুল নিয়ে জন্মানোর ঘটনা বিরল।

রাজস্থানের দীগ এলাকায় জন্ম নেওয়া ওই কন্যাকে এখন স্থানীয় মানুষ দেবী ধোলাগড়-এর মনুষ্য রূপে জন্ম বলে মনে করছেন। কার্যত দেবী রূপেই শিশুটিকে দর্শন করতে আসছেন সকলে।

চিকিৎসকেরা অবশ্য জানিয়েছেন ওই শিশুর ক্ষেত্রে জেনেটিক অ্যানোমালি নামে একটি সমস্যা কাজ করেছে। তবে তার জন্য সে অসুস্থ এমনটা নয়। শিশুটি সুস্থ আছে। ভাল আছে। তার কোনও শারীরিক সমস্যা নেই।


শিশুটির ২ হাতে ৭টি করে আঙুল আছে। ২ পায়ে ৬টি করে আঙুল আছে। এতগুলি আঙুল বিরল হলেও এর সঙ্গে শারীরিক অসুস্থতার কোনও সম্পর্ক নেই বলে নিশ্চিত করেছেন চিকিৎসকেরা।

তবে চিকিৎসকেরা যাই বলুন না কেন, পরিবারে লোকজন বেজায় খুশি। কারণ তাঁরা মনে করছেন তাঁদের ঘরে স্বয়ং দেবী আবির্ভূত হয়েছেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button