National

নবাবি শহরে এবার ঘর মানেই ক্যামেরা

নবাবি শহরে এবার প্রতি ঘর মানেই ক্যামেরা। এমনই এক অভিনব উদ্যোগ চালু হল। যার সুদূরপ্রসারী প্রভাব অবশ্যই মানুষের উপকারে আসবে।

প্রত্যেক বাড়িতে এবার পৌঁছে যাবেন পুলিশ আধিকারিকরা। সেখানে বসবাসকারী বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলবেন। বোঝাবেন ক্যামেরার গুরুত্ব। তাঁদের অনুরোধ করবেন কমপক্ষে ১টা হলেও যেন তাঁরা বাড়ির সামনে সিসিটিভি লাগান।

শুধু বাড়ি বলেই নয়, দোকানগুলিকেও একই অনুরোধ করা হবে পুলিশের পক্ষ থেকে। এজন্য শহরের বড় ব্যবসায়ীদের সঙ্গেও কথা বলছেন পুলিশ আধিকারিকরা।

শহরের বাড়ি ও দোকান তো বটেই, এমনকি রাস্তার অলিগলিও সিসিটিভি-র আওতায় আনার পরিকল্পনা করেছে শহরের পুলিশ। লখনউ শহরের একটা কোণাও যেন সিসিটিভি-র আওতার বাইরে না থাকে তা নিশ্চিত করতে চাইছে পুলিশ।

এতে শহরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় যে সুবিধা হবে তা বলাই বাহুল্য। কমবে অপরাধ প্রবণতাও। কারণ কিছু করতে গেলেই তা কোনও না কোনও ক্যামেরায় ধরা পড়ে যাবে।


লখনউ শহরে শুরু হতে চলা এই প্রকল্পের নাম দেওয়া হয়েছে হর ঘর ক্যামেরা। যার অর্থ প্রতিটি ঘরেই ক্যামেরা। এমনকি অপরাধ কমাতে প্রতিটি বাড়িকে ক্যামেরা বসাতে বলাই নয়, সেই অনুরোধে সাড়া দিয়ে ক্যামেরা বসালে ওই পরিবারকে পুরস্কৃতও করবে পুলিশ।

এছাড়া শহরের বিভিন্ন রাস্তার মোড়, রাস্তা বা ভিড়ের জায়গায় যে সিসিটিভি পুলিশ প্রশাসনের তরফে লাগানো হবে তা সরাসরি যুক্ত থাকবে স্থানীয় থানার সঙ্গে।

থানায় বসেই পুলিশকর্মীরা ওই এলাকার সব সিসিটিভি-র ফুটেজ দেখতে পাবেন। পরীক্ষা করতে পারবেন। যা শহরের অপরাধ অনেকটাই কমিয়ে দিতে পারবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button