National

ম্যানহোলের ঢাকনা খুলে মানুষের পাঁকে নেমে পড়ার দিন শেষ

রাস্তার ধারের ম্যানহোলের ঢাকনা খুলে সেই গোল অন্ধকূপে মানুষের নেমে পড়া দেখে অনেকেই অভ্যস্ত। তবে সে দৃশ্য এবার ইতিহাস হওয়ার পথে।


যেকোনও শহরের নিকাশি ব্যবস্থা সাধারণত মাটির তলা দিয়ে হয়ে থাকে। অনেক এমন নিকাশি ব্যবস্থাই ব্রিটিশ আমলে তৈরি। সেখানে বর্জ্য ভেসে যাওয়ার জন্য যে নালা করা থাকে তা অনেক সময় জমে গিয়ে নিকাশি ব্যবস্থাকে ব্যাহত করে। ফলে নর্দমার জল জমে যায়।


তখন দরকার পড়ে মাটির নিচ দিয়ে যাওয়া নালা সাফ করার। এজন্য রাস্তার কিছুটা দূরে দূরে থাকে ম্যানহোল। যেখান দিয়ে মানুষ নেমে পড়েন পাঁক আবর্জনায় ভরা অতি অস্বাস্থ্যকর অন্ধকূপে। এমনও দেখা গেছে যে ম্যানহোলে পরিস্কার করতে নেমে সেখানে তৈরি হওয়া বিষাক্ত গ্যাসে মৃত্যুও হয়েছে মানুষের।


এই আবর্জনা সাফাইকর্মীরা ম্যানহোলে নেমে সারা গায়ে পাঁক নোংরা মেখে ওই নালি পরিস্কার করেন। তবে এই অমানবিক কাজ এবার বন্ধ হতে চলেছে। এমন নয় যে ম্যানহোল আর পরিস্কার হবেনা। তবে তা আর মানুষ করবে না।

প্রয়াগরাজে বান্দিকূট নামে এক রোবট মানুষের হয়ে নামবে ম্যানহোলে। সেখানে যা সাফাইয়ের কাজ সেই রোবট করবে। তারপর কাজ হয়ে গেলে বেরিয়ে আসবে ওখান থেকে।


Robot
রোবট, প্রতীকী ছবি

প্রাণহীন এই অতি কর্মক্ষম রোবট দিয়ে যেমন সঠিক সাফাইও করা যাবে, তেমন এর কোনও ক্ষতিও হবেনা। আর সবচেয়ে বড় কথা মানুষের এভাবে পাঁকে নামা বন্ধ হবে।


আপাতত ১ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা খরচ করে এমন ৩টি রোবট কিনেছে প্রয়াগরাজ প্রশাসন। তবে এটা প্রয়াগরাজে শুরু হলেও তা যে ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়তে সময় নেবে না তা বলাই বাহুল্য। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *