National

দৌড়ে নয়, এ ম্যারাথনে বসে অংশ নিতে হয়, কাজ করে চোখ

ম্যারাথন শব্দটার সঙ্গে সকলেই কমবেশি পরিচিত। যার সঙ্গে দৌড়ের একটা যোগ রয়েছে। কিন্তু এমন এক ম্যারাথন হয়ে গেল যেখানে বসে অংশ নিতে হয়।

ম্যারাথন বলতে সাধারণ মানুষের কাছে একটানা দৌড়। সময়সাপেক্ষ লম্বা রেস। কিন্তু ম্যারাথন আরও অনেক ক্ষেত্রেই হতে পারে। যেমন এক অন্য ম্যারাথন নজর কাড়ল সম্প্রতি। যেখানে ঠায় বসে থাকাটাই চ্যালেঞ্জ।

তবে বসে থাকার ম্যারাথন নয়। বইপড়ার ম্যারাথন। যে ম্যারাথনে চোখ একটানা কাজ করে চলে বইয়ের পাতায়। যতক্ষণ কেউ বই পড়তে পারবেন তাঁর ফোন ততক্ষণ বন্ধ থাকবে। কেউ তাঁর সঙ্গে কথা বলবেন না। তিনিও কারও সঙ্গে কথা বলবেন না। নিজের পছন্দসই বই পড়ে যেতে হবে।

এমন এক বইপড়ার ম্যারাথন হয়ে গেল বিহারের গোপালগঞ্জে। যেখানে ৭২১ জন প্রতিযোগী অংশ নিলেন। বই পড়লেন টানা। স্থানীয় একটি রিডিং ম্যারাথন ক্লাবের তরফে এই অভিনব আয়োজন করা হয়েছিল।

বর্তমান যুগে মানুষ ক্রমে ডিজিটাল দুনিয়ার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছেন। বইপড়ার অভ্যাস প্রায় হারিয়ে যেতে বসেছে। কিন্তু এই সুঅভ্যাস হারিয়ে যাওয়া মানুষের জন্যই ক্ষতিকর।


বইয়ের একটা অন্য প্রয়োজনই রয়েছে। প্রতিটি মানুষের দিনে অন্তত ১ ঘণ্টা বই পড়া উচিত বলে অনুষ্ঠানে পরামর্শ দেন গোপালগঞ্জের জেলাশাসক।

বই যে মানুষের সেরা বন্ধু তা ফের একবার মনে করিয়ে দিল এই আয়োজন। আয়োজকেরা জানিয়েছেন তাঁদের এই উদ্যোগ এই ডিজিটাল দুনিয়াতেও দারুণভাবে মানুষকে আকর্ষিত করেছে। এমনকি অনুষ্ঠানের শেষে অনেকেই উদ্যোক্তাদের এমন আয়োজন প্রায়ই করার অনুরোধ জানিয়েছেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button