National

বিমানবন্দরে মহিলাকে সকলের সামনে জামা খুলতে বাধ্য করলেন সুরক্ষাকর্মীরা

একজন মহিলার জন্য এটা চরম অপমানের সন্দেহ নেই। ওই মহিলা জানিয়েছেন সকলে তাঁর দিকে তাকিয়েছিলেন। তাঁর প্রতি এমন মনোযোগ কোনও মহিলা চান না।

বিমানবন্দরে যাত্রীদের সুরক্ষা জনিত কারণে পরীক্ষা করা হয়। এমন কিছু নিয়ে তিনি প্রবেশ করছেন কিনা যা বেআইনি বা হানিকারক। এজন্য নানা যন্ত্রও রয়েছে সুরক্ষার প্রয়োজনে। তবে সুরক্ষার পাশাপাশি একজন মহিলার সম্মানটাও যে গুরুত্বপূর্ণ তা বোধহয় সে সময় সুরক্ষার দায়িত্বে থাকা কর্মীরা বুঝতেও পারেননি।

এক মহিলা সুরকার বেঙ্গালুরু বিমানবন্দরে এমন এক ভয়ংকর পরিস্থিতির মুখে পড়লেন যা তিনি হয়তো জীবনে কখনও ভুলতে পারবেননা। তিনি তাঁর ট্যুইটার হ্যান্ডলে দাবি করেন, সুরক্ষাকর্মীরা তাঁকে পরীক্ষার জন্য জামা খুলে ফেলতে বলেন।

বিমানবন্দরে যাত্রীদের সামনে এভাবে জামা খুলে ফেলাটা তিনি মেনে নিতে পারছেন না। জামা খুলে ফেলার পর তাঁর পরনে ছিল কেবল একটি ক্যামিসোল।

ক্যামিসোল বস্তুটি প্রায় একটি অন্তর্বাসের সমতুল। যা পরে তাঁকে বিমানবন্দরে সকলের সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। ফলে বিমানবন্দরের প্রায় সকলের নজর তাঁর দিকেই ছিল। তিনি লিখেছেন এমনভাবে সকলের নজর কাড়ার ইচ্ছা কোনও মহিলার থাকেনা।


ট্যুইটটি পরে অবশ্য ওই মহিলা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে মুছে দেন। এদিকে এই ঘটনা জানার পর বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এমন ঘটনা কখনই কাঙ্ক্ষিত নয়। তারা এজন্য ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছে।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিমানবন্দরের সুরক্ষার দায়িত্ব থাকে সিআইএসএফ-এর হাতে। তাই সিআইএসএফ-কেও বিষয়টিও জানানো হয়েছে।

এদিকে অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন, এমন ঘটনা যখন তাঁর সঙ্গে ঘটল তখন তিনি বিষয়টি নিয়ে পুলিশ বা সিআইএসএফ-এর কাছে অভিযোগ না জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কেবল জানাতে গেলেন কেন? ঘটনাটি অবশ্য সর্বস্তরেই সমালোচিত হয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button