National

হেমন্তেই পারদ নামল মাইনাস ১৫-তে, কাঁপছেন এলাকাবাসী

হাড় হিম করা ঠান্ডা বললেও কম বলা হয়। হেমন্তেই এমন এক প্রবল ঠান্ডায় কাবু দেশের একটি স্থান। যেখানে পারদ নামল মাইনাস ১৫ ডিগ্রিতে।

পারদ পতন যে শুরু হয়েছে তা শহর কলকাতাতেও বসে টের পাচ্ছেন সকলে। আর শহরের বাইরে গ্রামের দিকে তো রাতের দিকে এখনই গায়ে মোটা চাদর দিতে হচ্ছে।

ভারতের একটা বড় অংশেই ঠান্ডা পড়তে শুরু করেছে। আর তা এই হেমন্তেই জাঁকিয়ে পড়েছে বিভিন্ন জায়গায়। এখনও হেমন্ত কাটতে ১ মাসের ওপর বাকি। পড়ে আছে অগ্রহায়ণ। তার আগেই পারদ নামছে তরতর করে।

জম্মু কাশ্মীরে তো অক্টোবর থেকেই বরফ পড়া শুরু হয়েছিল। পারদ পতনও চলছিল টানা। এবার দ্রাসে পারদ নামল মাইনাস ১৫ ডিগ্রিতে। ফলে অনুমেয় যে সেখানে কী প্রবল ঠান্ডার মধ্যে মানুষজনকে বসবাস করতে হচ্ছে।

দ্রাসে যখন পারদ নেমেই চলেছে, তখন পিছিয়ে নেই লেহ, কার্গিলও। লেহতে পারদ নেমেছে মাইনাস ৭.৫ ডিগ্রিতে, কার্গিলে পারদ রেকর্ড হয়েছে মাইনাস ৪.২ ডিগ্রি।

লাদাখ তো বটেই, সেইসঙ্গে জম্মু কাশ্মীরের হালও বেহাল। পহেলগামে পারদ নেমেছে মাইনাস ৩.৪ ডিগ্রিতে। গুলমার্গে মাইনাস ৪.৬ ডিগ্রিতে কাঁপছেন স্থানীয় মানুষজন।

জম্মু কাশ্মীর জুড়েই গত ১ দিনে প্রচুর তুষারপাত ও বৃষ্টি হয়েছে। যা পারদ পতনে আরও সাহায্য করেছে। পাহাড়ি এলাকা কার্যত সাদা বরফের চাদরে ঢাকা পড়ে গেছে।

পারদ নামতে শুরু করেছে শ্রীনগরেও। সেখানে পারদ রেকর্ড হয়েছে ৪.৩ ডিগ্রি। জম্মু কাশ্মীর ও লাদাখে রাতের দিকে আরও পারদ পড়বে বলেই মনে করছে আবহাওয়া দফতর। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *